১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইয়েমেনে আত্মঘাতী বোমা হামলায় হত ১২৬


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ইয়েমেনের রাজধানী সানায় দুটি মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত এক শ’ ২৬ জন নিহত এবং ৩শ’রও বেশি লোক আহত হয়েছে। ইসলামিক স্টেট (আইএস) এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। ইয়েমেনে এটিই আইএসের প্রথম হামলা। খবর বিবিসি ও ইয়াহু নিউজের।

বদর এবং আল-হাসুস নামের দুটি মসজিদই মূলত শিয়া মুসলিম হাউথি গোষ্ঠীর। এ গোষ্ঠীটি ইয়েমেন সরকারের নিয়ন্ত্রণ দখল করেছে। হাউথি পরিচালিত আল-মাসিরা টিভির প্রতিবেদনে সানা এবং সাদার হামলায় নিহতের সংখ্যা মোট এক শ’ ২৬ এবং আহতের সংখ্যা ৩শ’ ৫০ উল্লেখ করা হয়েছে। তবে ইয়েমেনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চারটি বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা কমপক্ষে এক শ’ ২০ উল্লেখ করেছে। ইয়েমেনে আইএসের গণমাধ্যম কার্যালয়ের একটি অনলাইন বার্তার উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, পাঁচ আইএস যোদ্ধা বিস্ফোরক বেল্ট পরে ইয়েমেনে আত্মঘাতী অভিযান চালায়। চার যোদ্ধা যায় রাজধানী সানার বদর এবং হাসুস মসজিদের দুটি শিয়া হাউথি সদর দফতরে। আর পঞ্চমজন যায় সাদা প্রদেশের হাউথি ঘাঁটিতে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নিরাপত্তা কর্মকর্তা বলেছেন, হামলাকারীরা শিয়া হাউথি গোষ্ঠীর দুটি মসজিদে বিস্ফোরক বেল্টের বিস্ফোরণ ঘটালে এক শ’ ১৯ জন নিহত হয়। নিহতদের বেশিরভাগই হাউথি গোষ্ঠীর সমর্থক। তিনি আরও জানান, প্রথম হামলাটি হয় বদর মসজিদের ভেতরে। আর দ্বিতীয় হামলাটি হয় হাসুস মসজিদের বাইরে তল্লাশিকেন্দ্রে। নিহতদের মধ্যে বদর মসজিদের প্রধান ইমাম মুর্তাদা আল-মাহাদোয়ারি রয়েছেন বলে জানিয়েছে হাউথি আল-মাসিরা টিভি। ওদিকে হাসুস মসজিদে হামলায় নিহত হন দুই হাউথি কমান্ডারও। আহতদের অনেকের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: