১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স ও ব্রিটেন যোগ দিচ্ছে এশিয়ান ইনফ্রাস্ট্রাকচার ব্যাং


অর্থনৈতিক রিপোর্টার॥ যুক্তরাষ্ট্রকে বাদ দিয়ে চীনের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একটি আন্তর্জাতিক ব্যাংক। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) অর্থনীতিতে শক্তিশালী চার দেশ জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স ও ব্রিটেন এই ব্যাংকের সদস্য হচ্ছে। কিন্তু তাদের বন্ধুরাষ্ট্র যুক্তরাষ্ট্র এতে থাকছে না। ইতোমধ্যে ব্যাংকটির নাম দেয়া হয়েছে এশিয়ান ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক (এআইআইবি)। এশিয়া ও এর মধ্যপ্রাচ্যের ২৬টি দেশ এআইআইবির প্রতিষ্ঠাতা সদস্যের মর্যাদা পাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের নির্দেশনা উপেক্ষা করে ইইউর কয়েকটি সদস্য দেশ চীনভিত্তিক নতুন এই আন্তর্জাতিক ব্যাংকে যোগ দিতে যাচ্ছে। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এআইআইবির স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেছে দেশটি। এ সত্ত্বেও চীনের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠিত হতে যাওয়া ব্যাংকের সদস্য হচ্ছে ইইউর প্রভাবশালী কয়েকটি সদস্যরাষ্ট্র।

ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট মার্টিন স্কুলজ চীনভিত্তিক উন্নয়ন ব্যাংককে ইইউর সদস্যদের যোগ দেয়ার পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এ অংশগ্রহণ ভাল। তবে আরও দেশ যুক্ত হলে বেশি ভাল হবে। এশিয়ার পরিবহন, জ্বালানি, টেলিকমিউনিকেশন এবং অন্যান্য অবকাঠামোগত উন্নয়নে সহায়তা করার লক্ষ্য নিয়ে গত বছর বেজিংয়ে এআইআইবি প্রতিষ্ঠার ঘোষণা আসে। বেজিংয়ে ব্যাংকটির অবকাঠামো নির্মাণের কাজ চলছে। শিগগিরই এর কার্যক্রম শুরু হবে। তবে এই ব্যাংকের স্বচ্ছতা বিধানের পদ্ধতি এবং পরিবেশ ও নিরাপত্তাজনিত সুরক্ষার প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে যুক্তরাষ্ট্র। চীনের সরকারচালিত সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, দক্ষিণ কোরিয়া, লুক্সেমবার্গ ও সুইজারল্যান্ড এআইআইবির সদস্য হওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করছে। ফাইন্যান্সিয়াল টাইমস পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, ইইউর সদস্যরা নতুন এই ব্যাংকের সদস্য হলে তা যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক প্রভাবের জন্য একটি বড় ধাক্কাই হবে। আর এই সুযোগে ইউরোপে ‘সফট পাওয়ার’ বিস্তারের সুযোগ প্রসারিত হবে চীনের জন্য। মার্টিন স্কুলজ বলেছেন, এ ধরনের একটি ব্যাংক প্রতিষ্ঠার জন্য অবশ্যই আন্তর্জাতিক নিয়মকানুন মেনেই করতে হবে।