২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

‘হয় জমি, নয়ত মুক্ত চাই


নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ১৮ মার্চ ॥ রাজৈরে বাড়িতে ঘর তোলাকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া ঘটছে প্রতিনিয়ত। এ জমি নিয়ে একটি মামলা দায়ের করা হলেও বাদী পক্ষকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে পতিপক্ষ এমন অভিযোগও রয়েছে। বুধবার এলাকা ঘুরে জানা গেছে, রাজৈর উপজেলার চৌরাশী গ্রামের বিনোদ বৈরাগীর সাথে পাশের বাড়ির অনাথ বৈরাগীর দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। সোমবার বিনোদ বৈরাগী এ ব্যাপারে ৭ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপরেই বিভিন্ন সময় বাদী পক্ষকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে প্রতিপক্ষের লোকজন। বুধবার দুপুরে বিনোদ বৈরাগী ছোট ভাই বিজয় বৈরাগীর দেড় বছরের ছেলেকে চৌরাশী বাজারে বসে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে আসামি পক্ষের লোকজন। পরে স্থানীয়রা বাধা দিলে তারা দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ সময় আসামি পক্ষের ফেলে যাওয়া ৩টি রাম দা বাজার কমিটির লোকজন সংরক্ষণে রেখে দেয়। এছাড়াও বিভিন্ন সময় আসামি পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাদী পক্ষকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। তারা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছে ‘জমি চাই, নইলে মু-ু চাই’। বাদী পক্ষের ছোট ভাই মালয়েশিয়া প্রবাসী বিজয় বৈরাগী জানান, বাড়ির জমি নিয়ে বিরোধে মামলা হয়েছে। আদালত সুষ্ঠু বিচার করবে। কিন্তু স্থানীয় অনাথ বৈরাগী, পবিত্র বৈরাগী, সত্যজিৎ ও প্রসেনজিৎ বৈরাগী আমার দেড় বছরের ছোট ছেলেকে বিভিন্ন সময় হত্যার চেষ্টা করে।

মুন্সীগঞ্জে সালিশে হামলা, গোলাগুলি, নারীসহ আহত ৮

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা কাজী কসবা গ্রামে সালিশ বৈঠকে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে সালিশ চলাকালে সন্ত্রাসী হামলায় নারীসহ অন্তত ৮ জন আহত হয়েছে। এ সময় গুলিবর্ষণের শব্দে কাজী কসবা গ্রামে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে সালিশ বৈঠক প- হয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জানা যায়, নারী সংক্রান্ত ঘটনা নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর সদর উপজেলার কাজী কসবা গ্রামের কালু মিয়ার বাড়িতে সালিশ বৈঠক বসে। এ সময় মেয়ে পক্ষের লোকজন শহরের নয়াগাঁও এলাকা থেকে সালিশ বৈঠকে উপস্থিত হলে এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষরা তাদের ওপর হামলা চালায় এবং বেশ কয়েকজনকে আটক করে রাখে।

মাগুরায় ৩০ বাড়ি ভাংচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা মাগুরা থেকে জানান, মাগুরা সদর উপজেলার আমুড়িয়া গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বুধবার সকালে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের হামলা ও পাল্টা হামলায় ৩০ বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। জানা যায়, গ্রামের আওয়ামী লীগ সমর্থক টিটো ও হাতের আলীর সমর্থকদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছিল।

এর জের ধরে প্রায় ৩০টি বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।