২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পরিচালক জিএম সৈকতের উদ্যোগ


পরিচালক জিএম সৈকতের উদ্যোগ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অসহায় শিল্পীদের পাশে দাড়াতে বিভিন্ন সময়ে নানাউদ্যোগ নিয়েছেন জনপ্রিয় ও তরুণ নাট্য নির্মাতা জিএম সৈকত। এরই ধারাবাহিকতায় এবার দুস্থ শিল্পীদের নিয়ে একটি নাটক নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। প্রকৃতি টেলিমিডিয়ার প্রযোজনায় নির্বিতব্য নাটকটির নাম নির্ধারণ করা হয়েছে ‘শিল্পী’। নাটকটির শূটিং আগামীকাল ১৭ মার্চ থেকে শুরু হচ্ছে। পরিচালক জিএম সৈকত জানিয়েছে, সাতক্ষীরার বিভিন্ন লোকেশনে শূটিং করবেন তিনি। তিনি আরও জানান নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করবেন এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সাত্তার, রানী সরকার, বনশ্রী, কাঙ্গালিনী সুফিয়া, তানভির, ¯েœহা, লেমন, দোলন প্রমুখ। নাটক প্রসঙ্গে নির্মাতা জিএম সৈকত বলেন, একজন নাট্য নির্মাতা হিসেবে আমার নির্মিত নাটকের মধ্য দিয়ে অসহায় শিল্পীদের দুর্বিসহ জীবন তুলে ধরতে চাই। যাতে কোন অসুস্থ, অসহায় শিল্পীকে যেন আর মানুষের কাছে সাহায্যের জন্য হাত পাততে না হয়। অসুস্থ এবং অসহায় শিল্পীদের পাশে যদি শিল্পীরাই দাঁড়ায় তাহলে অসহায় শিল্পী বলে কেউ থাকবে না। এ প্রসঙ্গে রানী সরকার বলেন, জিএম সৈকতের মত ছেলেরা যদি আমাদের মত অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ায় শিল্পীরা উপকৃত হবে। আমি ব্যক্তিগতভাবে তার কাছে কৃতজ্ঞ। তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা পেয়েছি, এটা আমি কোন দিন ভুলবো না। অভিনেত্রী রানু দাস বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ কিন্তু কোন শিল্পী বা সংগঠন আমাকে সহযোগিতা করেনি। এমনকি কেউ খোঁজও নেয়নি। জিএম সৈকতের মাধ্যমে আমি প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য পেয়েছি। জিএম সৈকত আমাকে আবারও কাজের সুযোগ দিচ্ছে এজন্য আমি তার কাছে কৃতজ্ঞ। অভিনেতা সাত্তার বলেন, শিল্পীরা শেষ জীবনে অনেকটাই আর্থিক নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। এ বিষয়টা নিয়ে সংশ্লিষ্টদের ভাবা উচিত। বিশেষ করে জিএম সৈকতের মত নির্মাতা এবং সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে আরও বেশি বেশি এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া দরকার। প্রসঙ্গত, অসহায় ও অসুস্থ শিল্পী রানী সরকার, চিত্র নায়ক সাত্তার, বনশ্রীকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন জিএম সৈকত। এরই প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী ওই শিল্পীদের বিশেষ অনুদানের ব্যবস্থা করেন। নাট্য নির্মাতা জিএম সৈকতের এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন অনেকেই।