১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

টেরিটাওয়েল রফতানি ৪৫ শতাংশ হ্রাস


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ গত অর্থবছরের (২০১৩-১৪) জুলাই-জানুয়ারি মাসের তুলনায় চলতি অর্থবছরের একই সময়ে টেরিটাওয়েলের রফতানি কমেছে ৪৫ দশমিক ৩৪ শতাংশ, যা টাকার অঙ্কে প্রায় ১৬১ কোটি ২ লাখ।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সূত্র জানায়, গত অর্থবছরের প্রথম সাত মাসের তুলনায় চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে জানুয়ারি মাসে রফতানির লক্ষ্যমাত্রা বেড়েছে ২ দশমিক ৮৪ মিলিয়ন ডলার। তবে লক্ষ্যমাত্রা বাড়লেও কমেছে রফতানি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১৩-১৪ অর্থবছরে টেরিটাওয়েলের রফতানির লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬৭ দশমিক ১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা চলতি অর্থবছরে নির্ধারিত হয়েছে ৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে এ লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩৯ দশমিক ১৭ মিলিয়ন ডলার। অথচ লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে অর্জিত হয়েছে ২৪ দশমিক ৩৯ মিলিয়ন ডলার।

লক্ষ্যমাত্রা থেকে ৩৭ দশমিক ৭৩ শতাংশ কম অর্জন হয়েছে। তবে আরও আশঙ্কাজনকভাবে পিছিয়ে আছে আগের বছরের তুলনামূলক চিত্র।

২০১৩-১৪ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে ৪৪ দশমিক ৬২ মিলিয়ন ডলার আয় হয় টেরিটাওয়েল রফতানি করে। সে হিসাবে চলতি অর্থবছরের জুলাই-জানুয়ারি মাসে কম হয়েছে ২ দশমিক শূন্য ২৩ কোটি ডলার, যা টাকার অঙ্কে প্রায় ১৬১ কোটি ২ লাখ।

এদিকে টেরিটাওয়েলের রফতানি কমে যাওয়ার কারণ হিসেবে রাজনৈতিক অস্থিরতা, আন্তর্জাতিক বাজারে বাংলাদেশের ইমেজ সঙ্কটকে দায়ী করছেন রফতানিকারকরা। তাঁরা বলছেন, রাজনৈতিক সহিংসতার কারণে গত দুই বছর ধরে অর্ডার পেতে সমস্যা হচ্ছে। তাছাড়া পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধিও একটি অন্যতম সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।