২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নেমতসভ হত্যাকাণ্ড ক্রেমলিন ঐক্যে ভাঙনের আভাস!


রুশ সরকারবিরোধী নেতা বরিস নেমতসভের হত্যাকা-ে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সরকারের ভিতরকার বিভিন্ন শিবিরের মধ্যকার উত্তেজনাই প্রকাশ পেয়েছে। এরূপ উত্তেজনা সাধারণত চোখে পড়ে না। পুতিন এক সপ্তাহ ধরে বিভিন্ন বৈঠক বাতিল এবং তাকে প্রকাশ্যে না দেখা যাওয়ায় তার স্বাস্থ্য নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রুশ প্রেসিডেন্ট অসুস্থ- এমন খবরটিকে ক্রেমলিন উড়িয়ে দেয়। খবর ইয়াহু নিউজ ও টেলিগ্রাফের।

ক্রেমলিনের লাল ইটের দেয়ালের পিছনে কি ঘটছে তা বাইরের কেউই নিশ্চিতরূপে জানতে পারে না। কিন্তু নেমতসভের সহযোগীদের কেউ কেউ বলছেন, একটি উপদল যে এতে অসন্তষ্ট এবং এর কথা শুনতে হবে, পুতিনের কাছে এ বার্তা পাঠাতে উপদলটি তাঁর হত্যাকা-কে কাজে লাগছে। তাকে ক্রেমলিন ভবনের কাছেই গুলি করে হত্যা করা হয়।

এটি পুতিনের ১৫ বছরের শাসনের ভিত্তির প্রতি এক চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে। অনড় আনুগত্যের ধারণার উপরই এ শাসন প্রতিষ্ঠিত। ২৭ ফেব্রুয়ারির ঐ গোলাগুলির ঘটনায় পরবর্তী কয়েক ঘণ্টা সম্পর্কে নেমতসভের আইনজীবী ভাদিম সেøায়োরভ বলেন, আমার মনে হয় পুতিন আসলেই খুবই হতবুদ্ধি এমন কি ভীত হয়ে পড়েন। তিনি এক বার্তা সংস্থাকে বলেন, যদি আপনি ক্রেমলিনের পাশেই এটি করতে পারেন তা হলে প্রেসিডেন্টের মোটর বহরের রাস্তায় এটি করা কি সম্ভব নয়?

চলতি সপ্তাহে পুতিন কোন কারণ না দেখিয়েই কাজাখস্তান সফরের পরিকল্পনা বাতিল করেন। এতে মস্কোতে জোর গুজব ছড়িয়ে পরে। পুতিন অসুস্থ বলে এক কাজাখ কর্মকর্তা জানান, আর ক্রেমলিন জানায়, তিনি সুস্থ আছেন এবং স্বাভাবিক কাজকর্ম করছেন।

এ প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কে কোন পক্ষে বা এমন কি এরূপ প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে কি না, তা পূর্ণ নিশ্চয়তা সহকারে বলা অসম্ভব। কারণ, বিভিন্ন শিবিরের মধ্যে গুরুতর মতবিরোধ থাকার কথা কেউই প্রকাশ্যে স্বীকার করেননি। বিরোধী দলে নেমতসভের এক সহকারী সার্গেই শরভ-দেলনে বলেন, ওই হত্যাকা-ের উদ্দেশ্য নিয়ে তিনি কয়েকটি তত্ত্বই পোষণ করেন, কিন্তু এদের একটি হলো এটি অভ্যন্তরীণ ক্ষমতার লড়াইয়ের অংশ।

তিনি বলেন, সম্ভবত কর্তৃপক্ষের ভিতরই কোন গ্রুপ তাদের অবস্থান শক্তিশালী করা, আরও বড় পরিবর্তন আনার লক্ষ্যে পুতিনের ওপর চাপ প্রয়োগের চেষ্টা করছে। তবে বিশ্লেষকরা এক পক্ষে রাশিয়ার চেচনিয়া অঞ্চলের প্রধান ক্ষমতাশালী প্রধান রমজান কাদিরভ এবং অন্যদিকে পুতিনের ঘনিষ্ঠ সহযোগী রুশ রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর মধ্যে উত্তেজনার আভাসের প্রতি ইঙ্গিত করেন।