২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে মৃত্তিকা মায়ার জয়জয়কার


জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৩ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত বিজয়ীদের তালিকা প্রকাশ করেছে তথ্য মন্ত্রণালয়। গত ১০ মার্চ এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ তালিকা প্রকাশ করা হয়। মোট ২৫টি ক্যাটাগরিতে দেয়া হচ্ছে এ পুরস্কার। তবে ২৫টি ক্যাটাগরির মধ্যে ১৭টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়ে ইতিহাস গড়েছে গাজী রাকায়েত পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘মৃত্তিকা মায়া’। চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। আগামী ৪ এপ্রিল এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ীদের হাতে তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

২০১২ সালে সরকারী অনুদানে নির্মিত ‘মৃত্তিকা মায়া’ ১৭টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। এবারে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পাচ্ছেন তিতাস জিয়া (মৃত্তিকা মায়া) ও সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পাচ্ছেন মৌসুমী (দেবদাস) এবং শর্মী মালা (মৃত্তিকা মায়া)। সহ-অভিনেতার পুরস্কার পাচ্ছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ এবং সেরা সহ-অভিনেত্রীর পুরস্কার পাচ্ছেন অর্পণা। ‘মৃত্তিকা মায়া’ যেসব ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পাচ্ছে সেগুলো হচ্ছে– খল অভিনেতা মামুনুর রশীদ, শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার, শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা, সেরা চিত্রনাট্যকার ও পরিচালনায় গাজী রাকায়েত। এছাড়াও সম্পাদনায় মোঃ শরিফুল ইসলাম রাসেল, শিল্প নির্দেশনায় উত্তম গুহ, চিত্রগ্রহণে সাইফুল ইসলাম বাদল, শব্দগ্রহণে কাজী সেলিম, পোশাক ও সাজসজ্জায় ওয়াহিদা মল্লিক জলি এবং রূপসজ্জায় আলী বাবুল।

সেরা প্রামাণ্যচিত্র নির্বাচিত হয়েছে কামার আহমেদ সাইমনের ‘শুনতে কি পাও’। সেরা শিশু শিল্পীর পুরস্কার পাচ্ছে স্বচ্ছ ‘একই বৃন্তে’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য। এছাড়াও অন্তর্ধান চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শিশু শিল্পী বিশেষ শাখায় পুরস্কার পাচ্ছেন সৈয়দা অহিদা সাবরিনা। দেবদাস চলচ্চিত্রে গান গাইবার জন্য সেরা প্লেব্যাক গায়িকা নির্বাচিত হয়েছেন রুনা লায়লা এবং সাবিনা ইয়াসমিন। ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী’তে ‘আমি নিঃস্ব হয়ে যাবো জানো না’ গানের জন্য সেরা গায়ক হয়েছেন চন্দন সিনহা। সেরা গীতিকার হয়েছেন কবির বকুল। তবে সেরা সঙ্গীত পরিচালকের পুরস্কার যৌথভাবে পেয়েছেন একে আজাদ (মৃত্তিকা মায়া) এবং শওকত আলী ইমন (পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী)। সেরা সুরকার কৌশিক হোসেন তাপস। ২০১৩ সালের পুরস্কারের জন্য মোট ২৮টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছিল। সিনেমাগুলোর মান তুলনামূলকভাবে গত বছরের চেয়ে ভাল ছিল বলে তথ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। মোট এ বছর তিনটি শাখায় পুরস্কারের জন্য কোন সুপারিশ করা হয়নি। এগুলোর মধ্যে রয়েছে শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, শ্রেষ্ঠ নৃত্য পরিচালক এবং শ্রেষ্ঠ কৌতুক অভিনেতা।

-আনন্দকণ্ঠ ডেস্ক