১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ছয় মাস পারিশ্রমিক পাচ্ছেন না এক্সট্রা মোহরাররা


স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ দেশের ১৫ হাজার এক্সট্রা মোহরার ছয় মাস ধরে তাদের পারিশ্রমিক পাচ্ছেন না। এতে তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে অতিকষ্টে দিনযাপন করতে হচ্ছে। অথচ কোন সরকারী খাত থেকে তাদের এই পারিশ্রমিক দিতে হয় না। জমি রেজিস্ট্রির সময় ক্রেতাদের কাছ থেকে তাদের পারিশ্রমিক বাবদ টাকা আদায় করে রাখা হয়। আদায়কৃত এই টাকা থেকে তাদের পারিশ্রমিক দিয়েও উদ্বৃত্ত থাকে। জানা গেছে, জমি বেচাকেনার জন্য দলিলের নকল ভলিউম বইয়ে লেখার জন্য রেজিস্ট্রি অফিসের এক্সট্রা মোহরাররা ভলিউমের পাতাপ্রতি (৩০০ শব্দ) পান ২৪ টাকা। এ খাতে জমি ক্রেতার কাছ থেকে আদায় করা হয় ৪০ টাকা। উদ্বৃত্ত থাকে ১৬ টাকা। একজন এক্সট্রা মোহরারকে বাধ্যতামূলকভাবে মাসে ৩০০ পাতা (৯০ হাজার শব্দ) লিখতে হয়। এ হিসেবে তিনি পান সাত হাজার ২০০ টাকা। দেশের বিভিন্ন উপজেলায় সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের স্থায়ী পদের কর্মচারী মোহরারদের প্রধান কাজ হলো রেজিস্ট্রিকৃত দলিলের নকল ভলিউমে লেখা। দলিল রেজিস্ট্রি হওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে নকল লেখার কাজ শেষ না হলে সহযোগী হিসেবে ভলিউমে নকল লেখা এক্সট্রা মোহরারদের কাজ। এ জন্য প্রতি জেলা সদরের রেকর্ডরুমসহ দেশের ৪৭৬ সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে ১৫ হাজার এক্সটা মোহরার কর্মরত আছেন। বাংলাদেশ এক্সট্রা মোহরার এ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শহিদ জানান, তারা ছয় মাস ধরে তাদের পারিশ্রমিক পাচ্ছেন না। এতে এখন তাদের দুরবস্থার মধ্যে দিন কাটাতে হচ্ছে। যখনই দলিল রেজিস্ট্রি হয় তখনই এক্সট্রা মোহরার বাবদ পাতাপ্রতি ৪০ টাকা জমি ক্রেতার কাছ থেকে সরকারী ফি হিসেবে আদায় করা হয়। এক মাসে ১৫ হাজার এক্সট্রা মোহরারদের ভাতা বাবদ যে টাকা প্রয়োজন এভাবে সে টাকা আদায় হয়েও উদ্বৃত্ত থাকে। রাজস্ব উন্নয়ন বা অন্য কোন সরকারী খাত থেকে তাদের জন্য টাকা ব্যয় করতে হয় না। কিন্তু আট মাস ধরে আদায়কৃত এ টাকা কোথায় যাচ্ছে তা নিয়ে তাদের মাঝে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

রাজশাহীতে বিপুল পরিমাণ প্রাচীন ধাতব মুদ্রা উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর চরঘাট থেকে ৩ হাজার ৬৭টি প্রাচীন ধাতব মুদ্রা উদ্ধার করেছে র‌্যাব। র‌্যাব রাজশাহীর রেলওয়ে কলোনি ক্যাম্পের একটি দল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার তিলীবাড়ী এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় এসব উদ্ধার করে। এর মধ্যে ১৯০৩ থেকে ১৯১০ পর্যন্ত ৮৭৫টি, ১৮৯৬ থেকে ১৯১৯ পর্যন্ত ৬৫৮টি, ১৮৩৫ থেকে ১৮৫৮ পর্যন্ত ৩৮টি, ১৮৬২ থেকে ১৯২০ পর্যন্ত ১ হাজার ২টি, ১৯৫৩ থেকে ১৯৬৬ পর্যন্ত ৮৬টি, অস্পষ্ট ধাতব মুদ্রা ৪০৮টি, বাংলাদেশী পুরাতন অচল এক টাকার কাগজের নোট ৭টি এবং পাকিস্তানী পুরাতন অচল পাঁচ টাকার কাগজের নোট একটি উদ্ধার করা হয়। বুধবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, পাচারের উদ্দেশ্যে প্রাচীন এসব ধাতব মুদ্রাগুলো নেয়া হয়েছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব ওই অভিযান চালায়। তবে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পাচারকারীরা পালিয়ে যায়।

নীলফামারীতে বিদ্যুতস্পৃষ্টে গৃহবধূর মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ নীলফামারীতে বিদ্যুত স্পৃষ্ট হয়ে নিহত হয়েছে শামছুন নাহার (৫০) নামের এক গৃহবধূ। বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটে নীলফামারী জেলা সদরের লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের চৌধুরীপাড়া গ্রামে। নিহত গৃহবধূ ওই গ্রামের জালাল উদ্দিনের স্ত্রী। জানা যায়, শামসুন নাহারের শয়নকক্ষে বিদ্যুতের সুইস বোর্ডে একটি ছেঁড়া তার ছিল। এতে জড়িয়ে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়।

যশোরে দেয়াল চাপায় বৃদ্ধ নিহত

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোরের শার্শায় দেয়ালচাপায় রহমত আলী (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। বুধবার সকাল ১০টার দিকে যশোরের শার্শার বারোপোতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তিনি একই গ্রামের মৃত রমজান মোড়লের ছেলে।