১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

’৯২ বিশ্বকাপের পুনরাবৃত্তি চান ওয়াকার!


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বকাপে একবারই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পাকিস্তান। ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে। সেই বিশ্বকাপে শুরুতে পাকিস্তানের এতই বাজে অবস্থা হয়েছিল, প্রথম ৫ ম্যাচের তিনটিতেই হেরেছিল, একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল, জয় মিলেছিল একটি। এরপর যে জেতা শুরু করে পাকিস্তান, চ্যাম্পিয়নই হয়ে যায়। এবার বিশ্বকাপেও পাকিস্তানের অবস্থা ঠিক তেমন খারাপই হয়ে গিয়েছিল। প্রথম দুই ম্যাচেই ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হেরেছে। এরপর টানা তিন ম্যাচ জিতে নিয়েছে পাকিস্তান। কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়েই রেখেছে বলা চলে। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে হারাতে পারলে নিশ্চিতভাবেই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে যাবে পাকিস্তান। পাকিস্তানের যে অবস্থা, তা দেখে এখন ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপের স্মৃতিই পাকিস্তান কোচ ওয়াকার ইউনুসের সামনে আসছে। সেই স্মৃতিতেই এখন মশগুল ওয়াকার। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শনিবার বৃষ্টি আইনে ২৯ রানে জেতার পর ওয়াকার সেই স্মৃতিই সামনে তুলে ধরলেন। বললেন, ‘আমি আশা করছি সেই স্মৃতিই পুনরাবৃত্তিই ঘটুক। বিশ্বকাপ মানেই চাপ। সেই চাপ ১৯৯২ সালে ভালভাবেই নিতে পেরেছিলাম। এবারও নিতে পারছি। আমরা সেবারও প্রথমদিকে হেরেছিলাম। বিশ্বাস ছিল, সেই বিশ্বকাপের অধিনায়ক ইমরান খানের বিশ্বাস আরও বেশি ছিল। একই রকম বিশ্বাস এবারও আমাদের ড্রেসিংরুমে দেখতে পাচ্ছি। আমরা প্রতিনিয়তই ভাল করছি।’

ওয়াকার ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে খেলতে পারেননি। শেষ সময়ে ইনজুরির জন্য বিশ্বকাপ দলে থাকতে পারেননি। তবে প্রতিটি ম্যাচ, পরিস্থিতি ভালভাবেই পর্যবেক্ষণ করেছিলেন। এবার যখন দল শুরুতেই বিপাকে পড়ে, এরপর থেকে সেই বিশ্বাস নিয়েই এগিয়ে যান। ওয়াকার বলেন, ‘আমরা সেই বিশ্বাস ধারণ করে এগিয়েছি। আমরা সঠিক পথেই আছি। আমাদের এখনও কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে হলে শেষ ম্যাচটিও জিততে হবে।’

পাকিস্তান আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলছে বলেও জানান পাকিস্তান কোচ। বলেছেন, ‘আমরা আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলছি। আমরা সঠিক দল হিসেবে গড়ে উঠছি। বিশ্বাস ও সামর্থ্য নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছি। তবে এটাও ঠিক, এখনও অনেক পথ বাকি।’ ওয়াকার ফাইনালের দিকেই ইঙ্গিত করছেন। এ জন্য আর বাকি চারটি ম্যাচ। গ্রুপ পর্বের একটি ম্যাচ শেষেই কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল ও ফাইনাল বাকি। টানা জিততে থাকলে আর চারটি ম্যাচ জয়েই শিরোপা জিততে পারে পাকিস্তান। ওয়াকার সেই ভাবনাতেই যেন মশগুল হয়ে গেছেন।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: