১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আনসারের বুদ্ধিমত্তায় রক্ষা পেল দুটি ট্রেন


নিজস্ব সংবাদদাতা, জয়পুরহাট, ৬ মার্চ ॥ রেললাইনে দায়িত্ব পালনরত আনসার সদস্যের বুদ্ধিমত্তায় জয়পুরহাট-জামালগঞ্জ রেলপথে নাশকতা করলেও রক্ষা পেয়েছে জয়পুরহাট থেকে ছেড়ে যাওয়া একতা এক্সপ্রেস ট্রেনের শত শত যাত্রী এবং জ্বালানিবাহী একটি ট্রেন। ঘটনাটি জেলা সদরের উড়িরব্রিজ (শাহাপুর) নামক স্থানে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ঘটেছে। দুর্বৃত্তরা ঐ রেলপথের ৩০ ফুট রেললাইনজুড়ে দুটি ফিশ-প্লেট ও ৩৮টি স্প্যান্ডেল ক্লিপ খুলে ফেলেছিল।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ২টার দিকে ৩০/৪০ জনের একটি দুর্বৃত্ত দল উড়িব্রিজ নামক স্থানে উপস্থিত হয়ে ব্রিজ সংলগ্ন রেললাইনে দায়িত্ব পালনরত ৭ আনসার সদস্যকে জিম্মি করে তাদের কাছ থেকে মোবাইল কেড়ে নেয় এবং রেললাইনের অদূরে এক জায়গায় বসিয়ে রাখে। এরপর তারা রেলপথে ৩০ ফুট এলাকাজুড়ে দু’টি ফিশ-প্লেট ও ৩৮টি স্প্যান্ডেল ক্লিপ খুলে ফেলে। ফলে ঐ রেলপথ চলাচলের জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে। এ সময় দুর্বৃত্তদের জিম্মিতে থাকা ৭ আনসার সদস্যের মধ্যে একজন কৌশলে পালিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি বাড়িতে গিয়ে ঐ বাড়িওয়ালার মোবাইল থেকে জয়পুরহাট রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টারকে জানান। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে ঐ রেললাইনে ট্রেন সাময়িক বন্ধ রেখে রেলকর্মীদের নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও র‌্যাব ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এ সময় রেলকর্মীরা দ্রুত ঐ রেললাইন মেরামতের কাজ করে। হামিদুল নামে এক আনসার সদস্য জানান, কৌশলে পালিয়ে গিয়ে স্টেশনে খবর না দিলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। ট্রেন চলাচল ২ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর পুনরায় রেললাইন ঝুঁকিমুক্ত হওয়ায় ঢাকাগামী একতা এক্সপ্রেস এবং পার্বতীপুরগামী জ্বালানিবাহী ট্রেন পাঁচবিবি ও আক্কেলপুর স্টেশন থেকে ছেড়ে যায়। স্টেশন মাস্টার নুরুল ইসলাম জানান, সময়মতো খবর পাওয়ায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে দু’টি ট্রেন। এদিকে ঘটনার ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।