১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বন্দীবিনিময়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইন্দোনেশিয়ার


‘বালি নাইন’ মাদক চোরাচালান মামলায় দুই নাগরিকের মৃত্যুদ- ঠেকাতে অস্ট্রেলিয়া সরকারের বন্দীবিনিময় প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে ইন্দোনেশিয়া সরকার। খবর বিবিসির।

অস্ট্রেলিয়া সরকার বন্দীবিনিময় প্রস্তাব দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই তা প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেয় ইন্দোনেশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আরমানাথা নাসির বলেছেন, ইন্দোনেশিয়ায় এ ধরনের বন্দীবিনিময়ের কোন আইন নেই। অস্ট্রেলিয়ায় বন্দী তিন ইন্দোনেশীয় আসামির বিনিময়ে মৃত্যদ-প্রাপ্ত এ্যান্ড্রু চান এবং ময়ুরান শুকুমারানকে দেশে ফেরত পাঠানোর প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। যে কোন দিনই ফায়ারিং স্কোয়াডে ওই দুই অস্ট্রেলীয়র মৃত্যুদ- কার্যকর করা হবে। ঠিক কখন দ- কার্যকর হবে, তা এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। তবে কয়েক দিনের মধ্যেই তা ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন ইন্দোনেশিয়ার এটর্নি জেনারেলের এক মুখপাত্র। সিডনি থেকে আসা শুকুমারান ২০০৫ সালের এপ্রিলে বালিতে অপর নয় অস্ট্রেলীয় নাগরিকের সঙ্গে ৮ দশমিক ৩ কেজি হিরোইনসহ গ্রেফতার হন। শুকুমারান ও চান ওই দলটির নেতা বলে প্রমাণিত হয় এবং তাদের ২০০৬ সালে মৃত্যুদ- দেয়া হয়। গ্রেফতার ওই নয়জনের আটজন পুরুষ ও একজন নারী। তাদের সবার বয়স ১৮ থেকে ২৮ বছরের মধ্যে হওয়ায় একাধিক আপীল নিষ্পত্তি শেষে তাদের যাবজ্জীবন কারাবাসের দ- দেয়া হয়েছে।