২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিরাট কোহলির প্রতি আহ্বান


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভারতীয় দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিকে দলের মর্যাদা অক্ষুণœ রাখার আহ্বান জানিয়েছে দেশটির ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। এবার বিশ্বকাপ ধরে রাখার মিশনে খেলছে ভারত। আর এ বিষয়টি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে একপর্যায়ে কিছুটা চটে গিয়েছিলেন ভারতীয় এ তারকা। সে সময় তিনি তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে পত্র-পত্রিকায় লেখালেখির জন্য এক সাংবাদিকের সঙ্গে বিরূপ আচরণও করেন। ওই ঘটনার প্রেক্ষিতেই বিসিসিআই দলের ভাবমূর্তি ঠিক রেখে আচরণ করার আহ্বান জানিয়েছে কোহলিকে। চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়েছে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন ভারত। টানা তিন ম্যাচ জিতে পূর্ণ ৬ পয়েন্ট নিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল আছে ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষে। এবার পরবর্তী ম্যাচ পার্থে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। আজ ক্যারিবীয়দের বিরুদ্ধে নামার আগে পার্থের মারডক ওভালে অনুশীলন করছে ভারতীয় দল। মঙ্গলবার অনুশীলনের সময় এক সাংবাদিকের ওপর হুট করেই চটে যান কোহলি। নেট ছেড়ে মাঠের বাইরে দাঁড়ানো এক সাংবাদিককে উচ্চকণ্ঠে শাসিয়েও দেন। আর এ বিষয়টি দলের ভাবমূর্তির জন্য হানিকর বলে বিবেচনা করছে বিসিসিআই। এ বিষয়ে বোর্ডের সেক্রেটারি অনুরাগ ঠাকুর বলেন, ‘দু’দিন আগে পার্থে যা হয়েছে বিসিসিআই সেই ঘটনাটির সবকিছু লিপিবদ্ধ করে রেখেছে। এই ইস্যুতে বিসিসিআই টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে সার্বিক যোগাযোগ ধরে রেখেছে। আমরা তাঁদের জানিয়ে দিয়েছি এ ধরনের ঘটনার কোনভাবেই পুনরাবৃত্তি ঘটা চলবে না। যেসব গণমাধ্যম ক্রিকেট খেলাটাকে সবসময় দেখছে এবং সঙ্গে থেকে তা লেখনীর মাধ্যমে তুলে ধরে আরও জনপ্রিয় করে তুলছে তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্যকে আমরা যথার্থ সম্মান জানাই। সে কারণে যে খেলোয়াড়ই তাঁদের সঙ্গে সাক্ষাত করবেন তাঁর উচিত হবে দলের মর্যাদা অক্ষুণœ রেখে আচরণ দেখানো। যেমন আচরণের ব্যাপার ঘটেছে সেটা ভবিষ্যতে আর যেন না ঘটে সেই আহ্বান জানাচ্ছি।’ অবশ্য নিজের ভুল বুঝতে পেরে কোহলি ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। আরেক সাংবাদিকের কাছে সাক্ষাতকার দেয়ার সময় তিনি এ ক্ষমা প্রার্থনা করেন। সাক্ষাতকার গ্রহণকারী ওই সাংবাদিক এমনটাই দাবি করেছেন। তবে যার সঙ্গে কোহলি রূঢ় আচরণ করেছিলেন তিনি অভিযোগ করেন কোন আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়ের কাছ থেকে এমন আচরণ কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। ওই সাংবাদিক বলেন, ‘তিনি একজন আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় এবং তাঁর আচরণবিধি শেখা উচিত। তিনি সরাসরি আমার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেননি।’