২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পুঁজিবাজারে লেনদেন বেড়েছে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সূচকের টানা পতন দিয়ে পুরো সপ্তাহ পার করল দেশের পুঁজিবাজার। বৃহস্পতিবার প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রায় ৪৮ ভাগ কোম্পানির দরপতনের কারণে মূল্য সূচকের মিশ্রাবস্থা দেখা গেছে। তবে মূল সূচকের পতন ঘটলেও ডিএসইতে আগের দিনের চেয়ে লেনদেন বেড়েছে। এদিন ডিএসইতে ২৬৬ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। একইভাবে দেশের অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জেও সূচকের মিশ্রাবস্থা দেখা গেছে। নতুন কোম্পানি তালিকাভুক্তির দিনে উভয় বাজারেই শাশা ডেনিমসকে ঘিরে লেনদেন হয়েছে।

বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, গত কিছুদিন ধরে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে সূচকের পতন অব্যাহত রয়েছে। শেয়ার বিক্রির বিপরীতে নতুন করে ক্রয়াদেশ না বাড়ার কারণেই বাজারে এ দরপতন। তাদের অভিমত, কৌশলী বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ বাজারে সক্রিয় থাকলেও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা এখনও নিষ্ক্রিয় রয়েছেন। সেই সঙ্গে বড় বিনিয়োগকারীরাও সাইডলাইনে রয়েছেন, তাঁরাও রয়েছেন রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার অপেক্ষায়।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৪৪ কোটি ৪৫ লাখ টাকার বা ২০ শতাংশ। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ২২১ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার।

এ দিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩০৩টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৩টির, কমেছে ১৪৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির শেয়ার দর। সকালে সূচকের কিছুটা উর্ধগতি দিয়ে লেনদেন শুরুর পরে শেষ বিকেলে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪ হাজার ৬শ’ ৬৪ পয়েন্টে। তবে সেখানকার শরীয়াহ সূচকের তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর দর বাড়ার কারণে শরীয়াহ সূচকটি ১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১১২ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৭৩০ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছেÑ শাশা ডেনিমস, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, সামিট এ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেড, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, ইফাদ অটোস, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, মবিল যমুনা বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানি হলোÑ প্রথম প্রাইম মিউচুয়াল ফান্ড, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স, তুং হাই নিটিং, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স, স্টাইল ক্রাফট, ইফাদ অটোস, মিথুন নিটিং, কাসেম ড্রাইসেল ও সাইথ ইস্ট ব্যাংক প্রথম মিউচুয়াল ফান্ড।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগু হলোÑ ইউসিবিএল, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স, মেঘনা পেট, প্রথম জনতা মিউচুয়াল ফান্ড, ফনিক্স ফাইন্যান্স, ইউনাইটেড ফাইন্যান্স, নদার্ন জুটস ও এবি ব্যাংক।

এদিকে দেশের অপর বাজারের সূচকেও কিছুটা মিশ্রাবস্থা দেখা গেছে। সেখানেও আগের দিনের চেয়ে শেয়ার হাতবদল বেড়েছে। চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জেও নতুন কোম্পানির লেনদেন শুরুর দিনে সারাদিনে লেনদেন হয়েছে ৩১ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ২৫৩ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২২৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৭টির, কমেছে ১৩৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলোÑ শাশা ডেনিমস, জিপিএইচ ইস্পাত, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড, শাহজিবাজার পাওয়ার, ন্যাশনাল ফিড মিলস লিমিটেড, বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক, ইফাদ অটোস, স্কয়ার ফার্মা ও ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড।