১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অভিজিৎদের খুন করা যায় চিন্তা খুন করা যায় না


অভিজিৎ রায় নিহত হলেন। তাঁর স্ত্রীও হয়ত হতেন, অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন। কিন্তু এই বাঁচা হয়ত তাঁর জন্য আরও কষ্টকর। অভিজিৎ আমাদের নির্বিরোধী শিক্ষক অধ্যাপক অজয় রায়ের পুত্র। অজয় স্যার আমাদের শিক্ষকদের অনেক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন। একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সঙ্গে আছেন দীর্ঘদিন। আমাকে একদিন তাঁর জ্যেষ্ঠ পুত্র সম্পর্কে বলছিলেন, মুক্তমনা নামে একটি ব্লগ চালায় সে। কম্পিউটার জগতের সঙ্গে আমার যোগাযোগ নেই। তাই মুক্তমনা ব্লগ সম্পর্কে ধারণাও নেই। তবে, অনেকে মুক্তমনার কথা বলতেন। প্রশংসা করতেন। পুত্রের মৃত্যুর পর আক্ষেপ করে বলছিলেন, ‘সব দিক থেকে তার পিতাকে সে ছাড়িয়ে গিয়েছিল। কী হলো এখন। আমার বাঁচার অর্থ কী?’

সারা জীবন যিনি মুক্তবুদ্ধির আন্দোলন করেছেন, শেষ জীবনে কি এটিই তাঁর প্রাপ্য ছিল? যারা প্রগতি আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত তাদের জীবন প্রায় ক্ষেত্রে এরকম। [বিস্তারিত চতুরঙ্গ পাতায়, পৃষ্ঠা-৭]