১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

পরিবেশ ও প্রকৃতি রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে ॥ বনমন


স্টাফ রিপোর্টার ॥ পরিবেশ ও প্রকৃতি রক্ষায় বিশ্বের সব বন্যপ্রাণীকে রক্ষা করতে হবে। বন্যপ্রাণীকে হত্যা নয় ভালবাসতে শিখুন। বন্যপ্রাণীদের জন্য বাংলাদেশকে নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেবে সরকার। যাদের বন ও বন্যপ্রাণী রক্ষায় দায়িত্ব দেয়া হয় তারা নিজেরাই ভক্ষকে পরিণত হয়ে যান। বিদেশীদের কথায় নয়, প্রকৃতির ভারসাম্য রাখতে বন্যপ্রাণী ও বনকে রক্ষায় নিজ উদ্যোগেই আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। মঙ্গলবার রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস ২০১৫ পালন উপলক্ষে আন্তর্জাতিক পরিম-লে বন্যপ্রাণী শিকার ও পাচার বন্ধের গুরুত্ব শীর্ষক আয়োজিত এক আলোচনা সভায় পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এসব কথা বলেন।

বন্যপ্রাণী শিকার ও পাচার প্রতিরোধ করি প্রতিপাদ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, আমরা অতীতে দেখেছি যারাই বনের প্রাণী ও বন রক্ষায় দায়িত্ব পান তারাই বনকে রক্ষা না করে ধ্বংস করে। তারাই বনখেকো হয়ে যায়। এসব অসাধু ব্যক্তিবর্গ কিভাবে বন্যপ্রাণী রক্ষা করবেন। বনই যেখানে থাকবে না সেখানে বন্যপ্রাণী কিভাবে রক্ষা হবে। দুর্বৃত্তদের দুর্বৃত্তায়নে বন বিভাগের লোকেরাই সাহায্য করে। এ জন্য এসব বন বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারী, বনখেকো, বন্যপ্রাণী পাচার ও শিকারিদের বিরুদ্ধে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. কামাল উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান বনসংরক্ষক মোঃ ইউনুস আলী, এ ছাড়া সাবেক পরিবেশ ও বন সচিব মিহির কান্তি মজুমদার, বনসংরক্ষক তপন কুমার দে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম, ইউএসএইডের ক্রিল প্রকল্প প্রধান ড্যারেল ডিপ্পার্ট, প্রকৃতি ও জীব ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুকিত মজুমদার বাবু বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে মূল প্রতিপাদ্য পাঠ করেন আইইউসিএনের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ইশতিয়াক উদ্দীন আহমেদ।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: