২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তিন স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে


সংসদ রিপোর্টার ॥ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তিন স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনী থাকা সত্ত্বেও কিভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা প্রকৌশলী অভিজিৎ রায় নৃশংসভাবে খুন হলো, সে বিষয়ে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ব্যাখ্যার দাবি উঠেছে জাতীয় সংসদে। স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী এ দাবি জানিয়ে বলেন, এ আঘাত ব্যক্তি অভিজিতের ওপর নয়, মুক্তচিন্তা, মুক্ত মতপ্রকাশ, বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চা অধিকারের ওপর আঘাত, বিশ্ববিবেক ও মনুষ্যত্বের ওপর আঘাত। এভাবে যদি উগ্রবাদীরা বিচারের উর্ধে উঠে তাদের এই ঘৃণ্য হত্যাকাণ্ড চালাতেই থাকে তাহলে আমাদের ভবিষ্যত আরও অন্ধকারাচ্ছন্ন হবে।

রবিবার জাতীয় সংসদে স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে পয়েন্ট অব অর্ডারে তিনি এ দাবি জানান। তাহজীব আলম সিদ্দিকী ছাড়াও বিভিন্ন ইস্যুতে বক্তব্য রাখেন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ডাঃ রুস্তম আলম ফরাজী ও হাজী মোহাম্মদ সেলিম।

একই সঙ্গে আইনশৃৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্তব্য অবহেলা ও দায়িত্ব পালনে শৈথিল্যের নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, ঘটনার অতি সন্নিকটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তিন স্তরবিশিষ্ট নিরাপত্তা বেষ্টনী ছিল। এর মধ্য দিয়েই কয়েকজন বিপথগামী উগ্র মৌলবাদী অভিজিৎকে খুন করে নির্বিঘেœ উধাও হয়ে গেল তা ভাবতেও অবাক লাগে। তাহলে আমাদের নিরাপত্তা কোথায়?

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: