২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ফের বিসিসিআই সভাপতি হচ্ছেন ডালমিয়া


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবার বিশ্বকাপ ধরে রাখার মিশন নিয়ে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের মাটিতে লড়ছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল ভারত। আর এ লড়াইয়ের মধ্যেই ঘটতে পরে দেশটির ক্রিকেট পরিচালনায় বড় পরিবর্তন। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি পদের নির্বাচন আজ চেন্নাইয়ে। আর সভাপতি হওয়ার লড়াইয়ে অবতীর্ণ হচ্ছেন দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাওয়া সভাপতি এন শ্রীনিবাসন এবং দুই সাবেক আইসিসি ও বিসিসিআই সভাপতি শারদ পাওয়ার ও জগমোহন ডালমিয়া। বোর্ডের

ভেতরের খবর এবং বিভিন্ন বিষয় পর্যালোচনা করে অনেকেই এক্ষেত্রে এগিয়ে রাখছেন ডালমিয়াকে। এক যুগেরও বেশি সময় পর আবারও সভাপতি হতে চলেছেন ডালমিয়া এমনটাই গুঞ্জন চারদিকে।

বর্তমানে ক্রিকেট এ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) সভাপতি পদে থাকা ডালমিয়ার সম্ভাবনাই বেশি দেখতে পাচ্ছেন অনেকে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) ম্যাচ গড়াপেটার তদন্ত সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য শ্রীনিবাসনকে সরিয়ে দেয়া হয় বিসিসিআই সভাপতির পদ থেকে। কারণ তার জামাতা গুরুনাথ মিয়াপ্পনের বিরুদ্ধেই ছিল অভিযোগ। সে সময় অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন ডালমিয়া। তখনই আরও গুছিয়ে নিয়েছেন তিনি। এবার সভাপতি নির্বাচনে সিএবি ছাড়াও কলকাতার ন্যাশনাল ক্রিকেট ক্লাব এবং পূর্বাঞ্চলের আরও চারটি এ্যাসোসিয়েশনের সম্পূর্ণ সমর্থন নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। রবিবার দুপুর তিনটা পর্যন্ত নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ছিল। তিন বছর মেয়াদী এ পদের জন্য অবশ্য পাওয়ারকে শ্রীনিবাসন আহ্বান জানিয়েছিলেন সভাপতি অথবা চীফ প্যাট্রনের পদে মনোনয়ন নেয়ার জন্য। এখন পর্যন্ত বিসিসিআই-তে চীফ প্যাট্রন পদটি সৃষ্টি হয়নি। তবে এবার তা করা হবে। শ্রীনিবাসন নিজে ভোট দিতে পারবেন না এই শর্তে সুপ্রীমকোর্ট তাকে সভাপতি নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ দিয়েছে। এর আগে দু’বার সভাপতি নির্বাচনটা সুপ্রীমকোর্ট কর্তৃক পিছিয়ে দেয়া হয়েছে দুর্নীতির সঙ্গে বোর্ডের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ থাকায়। এবার নির্বাচন হচ্ছেই। আর ভারতীয় ক্রিকেট হয়ত নতুন কা-ারি হিসেবে জনপ্রিয় ডালমিয়াকেই পেতে যাচ্ছে আবার।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: