১২ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দক্ষিণাঞ্চলের লঞ্চ বাসে উপচেপড়া ভিড়


স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের চলমান অবরোধ ও হরতালের কোন প্রভাব নেই বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলের জনপদে। সম্প্রতি নাশকতাকারীদের ছোড়া পেট্রোলবোমায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে এ অঞ্চলের সাত জনের প্রাণহানি ও একাধিক ব্যক্তি আহত হয়ে চিকিৎসা নিয়ে এখন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। নাশকতা প্রতিরোধে এ অঞ্চলে জনসাধারণের সহযোগিতায় যৌথ বাহিনীর কঠোর অবস্থানের কারণে ইতোমধ্যে নাশকতাকারীরা আত্মগোপন করেছে। ফলে আতঙ্কের এ জনপদে ভয়কে জয় করে অতীতের ন্যায় বর্তমানে পুনর্রায় স্বাভাবিক জীবনযাত্রা শুরু হয়েছে। শুক্রবার সরেজমিনে বরিশাল নৌবন্দরে গিয়ে দেখা গেছে, বিপুলসংখ্যক মানুষের আনোগোনা। হরতাল-অবরোধ উপেক্ষা করে তারা গন্তব্যের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমাতে নৌবন্দরে এসেছেন। ঘাটে ভেড়ানো কয়েকটি লঞ্চ ঘুরে দেখা গেছে, এসব লঞ্চ বোঝাই হয়ে আছে যাত্রীতে। বরিশাল নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের উপ-পরিচালক আবুল বাশার জানান, ঢাকা-বরিশাল এবং অভ্যন্তরীণ রুটের লঞ্চে গত কয়েকদিন থেকে যাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি আরও জানান, লঞ্চঘাটে যাত্রীদের নিরাপত্তায় পুলিশ ও আনসার সদস্যের পাশাপাশি রয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি। অপরদিকে বরিশাল বাস মালিক সমিতির সভাপতি আফতাব হোসেন জানান, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী গত কয়েকদিন রাতের বেলা দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও বর্তমানে রাতের বেলা বাস চলাচল শুরু করেছে। পাশাপাশি যাত্রীদের উপস্থিতিও বৃদ্ধি পেয়েছে।

পুলিশের বরিশাল বিভাগীয় রেঞ্জ কর্মকর্তা (ডিআইজি) মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত গণপরিবহন চলছে স্বাভাবিক নিয়মে। তবে হরতাল-অবরোধে যানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সড়ক, মহাসড়ক ও নৌপথে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নজরদারি রয়েছে। এছাড়া পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব ও সাদা পোশাকধারী বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদ্যসরা মানুষের শতভাগ যানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মাঠপর্যায়ে কাজ করছেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।