২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তরুণ বিজ্ঞানীর কৃতিত্ব


তরুণ বিজ্ঞানীর কৃতিত্ব

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বারি) তরুণ বিজ্ঞানী ফারুক বিন হোসেন ইয়ামিন এবার একটি গাড়িতে পেট্রোলবোমা ছুড়ে বোমার আগুন থেকে রক্ষায় তার উদ্ভাবিত প্রযুক্তি প্রয়োগ করে দেখালেন। মঙ্গলবার দুপুরে বারি চত্বরে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বারির কর্মকর্তা ছাড়াও স্থানীয় পরিবহন নেতা এবং কয়েকশ’ চালক ও শ্রমিক উপস্থিত ছিলেন।

খোলা মাঠে থাকা একটি জিপে তিনি নিজে পেট্রোল বোমা ছুড়ে তার উদ্ভাবনের পরীক্ষা করে দেখান। মঙ্গলবার দুপুরে শুরু হয় প্রযুক্তি প্রদর্শনের আনুষ্ঠানিকতা। বারির একটি জিপ গাড়ির জানালার কাঁচে দুপাশে মোড়ানো হয় স্কচটেপ। জানালার কাঁচের ভেতরের দিকে দেয়া হয় তার উদ্ভাবিত বিশেষ মিশ্রণ যুক্ত কাপড়ের পর্দা। এরপর বিজ্ঞানী নিজ হাতে উপস্থিত লোকজনের সামনে ওই গাড়িতে ছুড়ে মারেন পেট্রোলবোমা। বোমার আঘাতে গাড়ির কাঁচ ভেঙ্গে গেলেও তা চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে পড়ে যায়নি। কাঁচ ছিদ্র হয়ে বোমার কিছু আগুন ভেতরে যায় এবং ওই পর্দায় জ্বলে কিছুক্ষণের মধ্যেই তা নিভে যায়।

এ সময় বারির মহাপরিচালক ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম ম-ল, গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হোসেন, গাজীপুর ডিজিএফআইর উপপরিচালক মোঃ মাহবুব রেজা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শরিফুল ইসলাম, জয়দেবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাহফুজুর রহমান, গাজীপুর জেলা বাস, মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সুলতান আহমেদ সরকারসহ কয়েকশ’ লোক উপস্থিত ছিলেন। ইয়ামিন উপস্থিত কর্মকর্তা, পরিবহন শ্রমিক ও নেতাদের কাছে উদ্ভাবিত প্রযুক্তির বিভিন্ন দিক ও প্রয়োগ পদ্ধতি তুলে ধরেন।

ইয়ামিন বলেন, পেট্রোলবোমার আগুন থেকে জীবন ও পরিবহন সুরক্ষিত রাখার কোন সহজ ও কম মূল্যের লাগসই প্রযুক্তি দেশে বর্তমানে নেই। এ চিন্তা থেকেই সাধারণের জীবন রক্ষায় এই সহজ কার্যকর প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন। একটি বড় যাত্রীবাহী বাসে এ প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য মাত্র ৪০০-৫০০ টাকা খরচ হবে বলে জানান তিনি। ইয়ামিন তার প্রযুক্তির বিবরণ দিয়েছেন উপস্থিত কর্মকর্তা ও সাংবাদিকদের সামনে।

ইয়ামিন জানান, যানবাহনের জানালার কাঁচের দুপাশ তিন ইঞ্চি চওড়া স্বচ্ছ স্কচটেপ দিয়ে লেমিনেশন করে নিতে হবে, যা পেট্রোলবোমার আঘাতে জানালার কাঁচ ভাঙ্গা ঠেকাবে এবং ভাঙলেও কাচের টুকরা ভেতরে ছিটকে পড়া রোধ করবে। এটি পেট্রোল ও আগুন ছড়িয়ে পড়াও রোধ করবে। এটি ব্যবহারে পেট্রোল বোমার ক্ষতি ৭০ শতাংশ রোধ করা সম্ভব বলে ইয়ামিন মনে করেন।

-মোস্তাফিজুর রহমান টিট

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: