২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দিয়ে পুরস্কৃত হলেন চারজন


বিডিনিউজ ॥ বিএনপি জোটের অবরোধ-হরতালের মধ্যে চট্টগ্রামে নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেয়ায় চারজনকে পুলিশের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। পুরস্কার থেকে প্রাপ্ত টাকা তারা দান করেছেন চট্টগ্রাম মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে।

সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) সদর দফতরে তাদের প্রত্যেকের হাতে দশ হাজার টাকা করে তুলে দেন পুলিশ কমিশনার আব্দুল জলিল মণ্ডল।

এরা হলো মোঃ মোস্তফা আমির, আব্দুল মান্নান, শহীদুল ইসলাম জুয়েল, মোঃ নাসিম। তারা চারজনই খুলশী থানা এলাকার বাসিন্দা। ওই এলাকায় নাশকতার চারটি ঘটনায় হামলাকারীদের গ্রেফতারে তারা পুলিশকে সহায়তা করেন। আর পুরস্কারের টাকা তারা দান করে দিয়েছেন নাশকতায় দগ্ধদের চিকিৎসায়। পুলিশ কমিশনার জলিল অনুষ্ঠানে দাবি করেন, চট্টগ্রামে নাশকতার ঘটনা অন্য জেলার চেয়ে কম। এর পরও আমরা নগরবাসীকে নিরাপত্তা দিয়ে আসছি। এ জন্য নগরবাসীও আমাদের বিভিন্ন ধরনের সহায়তা করছে।

তিনি সাংবাদিকদের জানান, গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চট্টগ্রামে নাশকতার অভিযোগে ৭১টি মামলা হয়েছে, যাতে আসামির সংখ্যা এক হাজার ৮৭১ জন। এর মধ্যে ৪৭৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ১০ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন।

চট্টগ্রামে যারা নাশকতার ইন্ধন দিচ্ছেন ইতোমধ্যে আমরা তাদের শনাক্ত করেছি। এর মধ্যে কয়েক সরকারী কর্মকর্তার নামও এসেছে। তাদের বিষয়ে আমরা খোঁজখবর নিচ্ছি, বলেন পুলিশ কমিশনার।

অবরোধ-হরতালে জনজীবন এখন ‘স্বাভাবিক হয়ে গেছে’ দাবি করে জলিল মণ্ডল বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার জন্য প্রতিষ্ঠান প্রধানদের আহ্বান জানান।

গত ৫ জানুয়ারি থেকে বিএনপি জোটের অবরোধ-হরতালে দেশ জুড়ে নাশকতা ও সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। এতে শতাধিক লোক নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন অনেকে। বিভিন্ন স্থানে নাশকতায় জড়িতদের প্রতিরোধও করেছে জনতা। আটকদের অধিকাংশই বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর কর্মী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত ২৫ জানুয়ারি চট্টগ্রামের তিন পোল এলাকায় হাতবোমা ফাটিয়ে পালানোর সময় জামায়াতের সহযোগী সংগঠন শিবিরের এক কর্মীকে পিটিয়ে পুলিশে দেয় স্থানীয়রা। নাশকতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে জনসাধারণের কাছ থেকে সহযোগিতা পেতে সরকার, র‌্যাব ও পুলিশের পক্ষ থেকে পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে, যাতে সর্বোচ্চ অঙ্ক দেয়া হয়েছে এক লাখ টাকা।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: