১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

পেট্রোলবোমায় পুলিশ হত্যায় ফেঁসে যেতে পারেন খালেদা


শংকর কুমার দে ॥ ‘বিএনপির মহানগর সেক্রেটারি সোহেল ভাই বলেছেন, ম্যাডামের নির্দেশ আছে পুলিশের ওপর এ্যাটাক করে পুলিশের মনোবল ভেঙ্গে দিতে হবে।’ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে এ ধরনের কথা বলেছেন টিপু নামের এক আসামি। আসামি টিপু রাজধানীর রমনায় পুলিশের বাস লক্ষ্য করে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপকারীদের একজন। অবরোধ-হরতালের নামে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের ঘটনায় ১৩ জন অগ্নিদগ্ধ হওয়ার পর মারা গেছেন পুলিশ কনস্টেবল শামীম। পেট্রোলবোমার আগুনে পুলিশ কনস্টেবল শামীমকে পুড়িয়ে মারার ঘটনা এবং জীবন্ত দগ্ধ করার ঘটনায় ফেঁসে যেতে পারেন বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) সূত্রে এ খবর জানা গেছে।

সূত্র জানায়, রমনা পার্কের গেটে পুলিশের গাড়িতে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এর মধ্যে টিপু, রফিক, আলফাজ নামের ৩ জন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন আদালতে। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল হকের ২৪ নম্বর কোর্টে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেন মোঃ রফিক আকন্দ। রফিক আকন্দ ছাড়াও স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন আলফাজ ও টিপু।

রফিক জবানবন্দীতে বলেছেন, ‘আমি (রফিক) গাউছিয়া মার্কেটে ফুটপাথে জুতা বিক্রি করি। আমি বিএনপির রাজনীতি করি। গত ১৭ জানুয়ারি ২০-১৫ বিকেলে আমাকে ফোন দেয় ছত্তার। ফোন দিয়ে আব্বাসকে নিয়ে শাহবাগে যেতে বলে আমাকে। সেখানে টিপু ভাই, হোসেন ভাই আসার কথা। আমি আব্বাস একটি রিকশা করে শাহবাগে যাই। সেখানে পূবালী ব্যাংকের নিচে ছত্তারের সঙ্গে দেখা হয়। এরপর মাগরিবের পরপর বারডেমের ভেতরে গিয়ে আমরা তিনজন হোসেনের সঙ্গে দেখা করি।

জবানবন্দীর বিবরণে আরও জানা গেছে, আমরা শিশুপার্কের সামনের রাস্তা দিয়ে রমনা পার্কের ভেতরে একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে যাই। সেখানে কিছুক্ষণ পর ছত্তার ফোন দেয়। এরপর একটি মোটরসাইকেলে করে টিপু এবং শাহ আলম আসে। টিপুর হাতে এ সময় একটি হাতব্যাগ ছিল। কিছুক্ষণ পর সেখানে আসে জনি। এর পরে আমার সামনে টিপু ও ছত্তার কিছুক্ষণ কথা বলে। টিপু জানায় ছত্তারকে। তার (টিপুর) সঙ্গে মহানগর সেক্রেটারি সোহেলের (হাবিব উন নবী খান সোহেল) কথা হয়েছে। সোহেল ভাই বলেছেন, ম্যাডামের নির্দেশ আছে পুলিশের ওপর এ্যাটাক করে পুলিশের মনোবল ভেঙ্গে দিতে হবে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: