২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এবারও লাখো প্রদীপ প্রজ্বলন- অন্ধকার থেকে মুক্ত করুক একুশের আলো


এবারও লাখো প্রদীপ প্রজ্বলন- অন্ধকার থেকে মুক্ত করুক একুশের আলো

নিজস্ব সংবাদদাতা, নড়াইল, ২১ ফেব্রুয়ারি ॥ ‘অন্ধকার থেকে মুক্ত করুক একুশের আলো’ এ স্লোগানকে নড়াইলে ভাষা শহীদদের স্মরণ করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় শহরের কুড়িরডোপ মাঠে একুশ উদ্যাপন পর্ষদের আয়োজনে এ মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলন করা হয়। সন্ধ্যায় অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন নড়াইলের ভাষাসৈনিক রিজিয়া খাতুন। এছাড়া ৬৫টি ফানুষ ওড়ানো হয়। নড়াইলসহ বিভিন্ন জেলার হাজার হাজার দর্শনার্থী এ দৃশ্য উপভোগ করেন।

আয়োজকরা জানান, ভাষা শহীদদের স্মরণে ১৯৯৭ সালে নড়াইলে এই ব্যতিক্রমী আয়োজন শুরু হয়। প্রথমবার নড়াইলের সুলতান মঞ্চসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে ১০ হাজার মোমবাতি প্রজ্বলন করা হয়। এরপর থেকে নড়াইল সরকারী ভিক্টোরিয়া কলেজ খেলার মাঠে প্রদীপ জ্বালিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ করা হচ্ছে। বছর বছর এর ব্যাপ্তি বেড়েছে। এ বছর এক লাখ মোমবাতি প্রজ্বলন করা হয়েছে। ওড়ানো হয়েছে ৬৫টি ফানুস। সন্ধ্যার সঙ্গে সঙ্গে দুই হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবী এক লাখ মোমবাতি প্রজ্বলনের কাজ করেন। প্রায় আধাঘণ্টার মধ্যে আলোকিত হয়ে যায় বিশাল মাঠ। বর্ণাঢ্য এই আয়োজন দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে হাজার হাজার মানুষ ভিড় করেন কলেজ মাঠে।

একুশ উদ্যাপন পর্ষদের আহবায়ক প্রবীণ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব প্রফেসর মুন্সি হাফিজুর রহমান বলেন, আমাদের লক্ষ্য এই মঙ্গল প্রদীপের আলো পৃথিবীর সমস্ত ভাষা ও সংস্কৃতিকে আলোকিত করে সারা পৃথিবীকে উজ্বল করবে। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে প্রদীপ প্রজ্বলন ছাড়াও একুশের কবিতা, গান, গণসঙ্গীতসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রদীপ প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে নড়াইলের জেলা প্রশাসক আব্দুল গাফফার খান, জেলা পরিষদের প্রশাসক এ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দীন খান নিলু, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, নাট্যকার কচি খন্দকারসহ বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: