২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

একুশের প্রথম প্রহরে-


ঢাবি রিপোর্টার ॥ অমর একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করল জাতি। ঘড়ির কাঁটায় রাত বারোটা এক মিনিটে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে জাতির পক্ষে বায়ান্নর ভাষা শহীদদের গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করলেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, যুক্তরাজ্যের হাউস অব লর্ডসের স্পীকার রাইট বারোনেস ডি সুজা ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে স্বল্প সময়ের জন্য অনানুষ্ঠানিক কুশল বিনিময় করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। মমতা ব্যানার্জীর সঙ্গে ছিলেন সুবোধ সরকার, নচিকেতা, প্রসেনজিৎ, দেব প্রমুখ।

পরে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য বিশেষ করে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, নৌমন্ত্রী শাজাহান খান, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের নেতৃত্বে ১৪ দল, বিরোধী দলের পক্ষে রওশন এরশাদ, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ, আ স ম ফিরোজ, জিয়াউদ্দিন বাবলু, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল ইকবাল করিম ভূঁইয়া, বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার মার্শাল মোহাম্মদ ইনামুল বারী, নৌবাহিনী প্রধান রিয়ার এডমিরাল মুহাম্মদ ফরিদ হাবিব, ইন্টার পার্লামেন্টারি এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী, বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনারবৃন্দ, এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক প্রাণ গোপাল দত্ত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির পক্ষে সভাপতি অধ্যাপক ফরিদউদ্দিন আহমেদ, ভিসি অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর আনসার ও ভিডিপি, বাংলা একাডেমি, জাতীয় কবিতা পরিষদ, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠন এবং সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। তারা ফুল দিয়ে অমর শহীদদের শ্রদ্ধা জানায়। এছাড়া শহীদ বেদিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি-জেপি, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি, গণজাগরণ মঞ্চ, শিল্পকলা একাডেমি, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় প্রেসক্লাব, জাসদ, বাসদ, ছাত্রলীগ, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্রমৈত্রী, ছাত্র ফ্রন্ট, জাসদ ছাত্রলীগ, ছাত্র ফেডারেশন। রাত বারোটায় শহীদ মিনারে মানুষের যে ঢল নামে তা অবিরতভাবে চলে প্রভাত ফেরি পর্যন্ত।

এদিকে শ্রদ্ধা জানানোর আগে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন, বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, নানা শ্রেণী-পেশার মানুষ শহীদ মিনারে যাওয়ার রাস্তার দুইপাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে থাকেন। তারা রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পীকার ও মমতা ব্যানার্জীসহ শ্রদ্ধা জানাতে আসা সবাইকে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান। তাঁরাও জনতার শুভেচ্ছার জবাব দেন। পরে মুহূর্তেই ভালবাসা আর শ্রদ্ধায় ফুলে ফুলে ভরে যায় গোটা শহীদ মিনার। কড়া নিরাপত্তার মধ্য সুশৃঙ্খলভাবে আজও ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাবে নানা শ্রেণী-পেশার মানুষ, বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন।