২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শিবিরের নতুন কৌশল ॥ পটিয়ায় নাশকতার যন্ত্র উদ্ধার


নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া, ১৯ ফেব্রুয়ারি ॥ গাড়ির চাকা পাংচার করে জামায়াত-শিবির ও অবরোধকারীরা চট্টগ্রামের পটিয়ায় নাশকতার নতুন পরিকল্পনা নিয়েছে। চলমান অবরোধ ও টানা হরতালে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কে দিনে ও রাতে স্বাভাবিকভাবে বিভিন্ন গাড়ি চলাচল করছে। ফলে এখানে অবরোধ ও হরতালের প্রভাব পড়ছে না। কিন্তু জামায়াত-শিবির গাড়ির চাকা পাংচার করে গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করার নতুন একটি কৌশল নিয়েছে। বুধবার রাতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের পটিয়া আমজুরহাট এলাকা থেকে পুলিশ লোহার এ্যাঙ্গেল ও পেরেক দিয়ে তৈরি চারটি নাশকতার যন্ত্র উদ্ধার করেছে। তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এখানকার পুলিশের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিনের অভিযোগ, বিএনপি-জামায়াত ও এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা উপজেলার সর্বত্র প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না। বরং পুলিশের কয়েকজন অফিসার অপরাধীদের সঙ্গে সখ্য করে নিজেদের পকেট ভারি করছে। শুধুু তাই নয় টহল পুলিশের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে প্রতিদিন বিভিন্ন যানবাহন আটকিয়ে গণহারে টাকা আদায় করছে পটিয়া থানার এসআই কুতুব উদ্দিন। বর্তমান প্রেক্ষাপটে যানবাহন আটকিয়ে টাকা আদায়ের কারণে গাড়ির মালিক ও চালকরা ক্ষোভে ফুঁসে উঠছেন। পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক রাজু আহমদ বলেন, গত মঙ্গলবার উপজেলা শিবিরের মূল সংগঠক ও নাশকতার পরিকল্পনাকারী মহিউদ্দিন রনিকে গ্রেফতারের পর শিবির চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের পটিয়ায় গাড়ির চাকা পাংচার করে গাড়িতে অগ্নিসংযোগের পরিকল্পনা নিয়েছিল। সে মোতাবেক শিবির পটিয়া আমজুরহাট এলাকায় মিছিল করে চাকা পাংচার করার যন্ত্র রাস্তায় ফেলে রাখে। ওই যন্ত্রে একটি গাড়ির চাকাও পাংচার হয়েছে। কিন্তু অগ্নিসংযোগের আগেই পুলিশ খবর পেয়ে আমজুরহাট এলাকা থেকে ৪টি লোহার যন্ত্র উদ্ধার করে।