১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শহীদ মিনার এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা


স্টাফ রিপোর্টার ॥ আগামীকাল শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সারাদেশ থাকছে কঠোর নিরাপত্তায়। বিএনপির ডাকা দেশব্যাপী চলমান টানা অবরোধের মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঢাকায় এসেছেন। রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় নেত্রীর মতো মমতা বন্দোপাধ্যায়ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাবেন। তবে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাচ্ছেন না। খালেদা জিয়ার শহীদ মিনারে যাওয়ার নিরাপত্তার বিষয়ে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কেউ যোগাযোগ করেননি বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

অবরোধ-হরতালের নামে চোরাগোপ্তা হামলা অব্যাহত থাকায় এবার কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনী গড়ে তোলা হয়েছে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারসহ আশপাশের এলাকা গত এক সপ্তাহ ধরেই গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যে রয়েছে। আজ সকাল থেকে আগামীকাল বিকেল নাগাদ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারসহ আশপাশের এলাকায় যানবাহন চলাচলের ওপর বিধি-নিষেধ বলবৎ থাকবে।

বৃহস্পতিবার ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া ও র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ সরেজমিনে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন। পরে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি কমিশনার ও র‌্যাব মহাপরিচালক এ সব বিষয় জানান।

তারা জানান, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের ডাকা অবরোধ-হরতালে ককটেল ও পেট্রোলবোমা দিয়ে চোরাগোপ্তা হামলা অব্যাহত আছে। বিষয়টিকে মাথায় রেখেই নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় নেত্রী ছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। এছাড়া বিদেশী মেহমান থাকছেন। শ্রদ্ধা জানাতে যাচ্ছেন সমাজের জ্ঞানী-গুণী থেকে শুরু করে সমাজের সর্বস্তরের মানুষ। চোরাগোপ্তা হামলাসহ নানাবিষয় মাথায় রেখেই নিরাপত্তা বলয় সাজানো হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে বাড়তি কড়াকড়িকে সুদৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।