১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

খালেদাকে গ্রেফতারের দাবি সংসদ সদস্যদের


খালেদাকে গ্রেফতারের দাবি সংসদ সদস্যদের

সংসদ রিপোর্টার ॥ অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা। রাজনীতির নামে বিএনপি-জামায়াত সন্ত্রাস-নাশকতা চালাচ্ছে দাবি করে তাঁরা বলেন, দু’কুল হারিয়ে দিশাহারা খালেদা জিয়ার প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলছে গোটা দেশ। নির্বাচন নয়, হৃদয়হীন বিএনপি নেত্রী মানুষকে পুড়িয়ে পুড়িয়ে হত্যা করে পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। কিন্তু সারাদেশের মানুষ যেভাবে ফুঁসে উঠেছে, কাঁটাতারের বেড়া দিয়েও খালেদা জিয়া জনরোষ থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারবেন না। স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিতে তাঁরা এসব কথা বলেন। রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা এগিয়ে নিতে রবিবার প্রশ্নোত্তরপর্ব টেবিলে উত্থাপন করা হয়।

আলোচনায় অংশ নেন সরকারী দলের কামাল আহমেদ মজুমদার, পঞ্চানন বিশ্বাস, আ ক ম বাহাউদ্দিন, নিলুফা জাফরউল্লাহ, উম্মে কুলসুম স্মৃতি, মনজুরুল ইসলাম লিটন, নবী নেওয়াজ, ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা, এম এ মালেক, ওয়ার্কার্স পার্টির মোস্তফা লুৎফুল্লা ও জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ নোমান।

সরকারী দলের কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, দেশের উন্নয়নকে ধ্বংস করতে খালেদা জিয়া রাজাকার-আলবদরদের নিয়ে একাত্তরের কায়দায় হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছেন। সরকারকে নিশ্চুপ বসে থাকলে হবে না; দেশ, জাতি ও গণতন্ত্রের স্বার্থে এদের কঠোরহস্তে দমন করতে হবে। আর যাঁরা সুশীল সমাজের নামে বড় বড় কথা বলছেন, তাঁরা ওয়ান-ইলেভেনের নায়ক সৃষ্টিকারী। একাত্তরের ঘাতক আর খুনী খালেদা জিয়ার সঙ্গে কীসের সংলাপ? খালেদা জিয়ার এমনকি শক্তি আছে যে তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না? প্রয়োজনে আইন করে খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করে দেশকে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানান।

ওয়ার্কার্স পার্টির মোস্তফা লুৎফুল্লা বলেন, ব্যর্থ পাকিস্তানের কায়দায় রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে মৌলবাদ-জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসীরা ষড়যন্ত্র করছে।

পঞ্চানন বিশ্বাস বলেন, খালেদা জিয়া হরতাল-অবরোধের নামে মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা অব্যাহত রাখলে কাঁটাতারের বেড়া দিয়েও নিজেকে রক্ষা করতে পারবেন না। সরকারী দলের মনজুরুল ইসলাম লিটন বলেন, সামান্য মনুষ্যত্ব থাকলে খালেদা জিয়া এভাবে মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করতে পারতেন না। ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা বলেন, খালেদা জিয়া রাজনীতির নাম ব্যবহার করে সারাদেশে সন্ত্রাস চালাচ্ছেন, মানুষকে পুড়িয়ে পুড়িয়ে মারছেন। তাঁর প্রতিহিংসার আগুনে গোটা দেশ আজ জ্বলছে।