২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মনমাতানো ফাল্গুন


শীতের ফুরিয়ে আসা শিশিরস্নাত প্রহরকে বুক পকেটে তুলে রেখে ঝনাৎকার শব্দে নতুন কাঁচাপয়সার মতো বসন্ত এখন যেন সমগ্র প্রকৃতিতে ছড়িয়ে পড়ার অপেক্ষায়। কিন্তু প্রকৃতির ক্যানভাসে বসন্তের রূপ ও রঙের তুলির টানে অপূর্ব ঋতুর আগমনকে অভিনন্দিত করার তোড়জোড় ইতোমধ্যে সূচিত হয়ে গেছে। একইভাবে ফাল্গুনের গুঞ্জরিত আনন্দঘন রৌদ্রময় ইমেজ গহন মুখরতা নিয়ে ছড়িয়ে পড়েছে ভুবনের প্রতিটি পল্্-অনুপলে।

বসন্ত ঋতু মানেই একটা অন্যরকম আবেদন। ভিন্নরকম এক অনুভূতি মানুষ ও প্রকৃতির মধ্যে বসন্তে হিল্লোলিত হয়। শীতের মলাট খসে পড়তে পড়তে জীবনের প্রতিটি পঙ্ক্তিতে যেন কবিতার শব্দমধুর এক অনুরণন স্পন্দিত হয় এই বসন্তে। মন কেমন করা, উন্মনা, উদাস হয়ে যাওয়া বসন্তকে অভিবাদন জানাতে যেন সবার মধ্যেই থাকে একটা আগাম প্রস্তুতি। বসন্তের এই বাক্সময় ঔজ্জ্বল্যের নির্জন কিন্তু গুঞ্জরনশীল বাসন্তী মুগ্ধ রঙিন নিসর্গকে বরণের শব্দ যেন এরই মধ্যে নগরজীবনের মুহূর্তগুলোকে উন্মুখ করে তুলেছে।

আজ প্রকৃতির সবুজ দরোজায় ভোরবেলা বাজিয়ে এসে নিসর্গের বসার ঘরে জড়ির ঘাগড়া ছড়িয়ে বসবে বর্ণোজ্জ্বল ঋতুরাজ বসন্ত। তার আগেই বাঙালীর জীবনের এক অনন্য গাঁথা সাংস্কৃতিক ধারার এক অনন্য প্রতিচ্ছবি নিয়ে শুরু হয়েছে অমর একুশে গ্রন্থমেলা। বইপ্রেমী, শিল্পমনা এবং দেশীয় পোশাকের প্রতি আকণ্ঠ আগ্রহী মানুষের প্রাণখোলা আনন্দের ধারায় সিক্ত মন নিয়ে কবি, লেখক, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, পাঠকদের এক মহামিলন ঘটেছে বাংলা একাডেমি চত্বরে। বসন্ত যেন সকল ঋতুকে এনে ষড়ঋতুর মোহনায় বইয়ে দিয়ে যাবে। ছয়টি রঙের ছয়টি প্রবহমান ধারা যেন ভিন্ন ভিন্ন অনুভূতি। ভিন্ন ভিন্ন আমেজে অঙ্কিত হয়ে বাঙালীর জীবনবোধ, বাঙালীর চেতনা, বাঙালীর চিরায়ত-চিরন্তন ছবিটার মধ্য দিয়ে অনাদিকাল ধরে বয়ে চলেছে নিরবধি।

অপরাজিতা ডেস্ক