২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পটুয়াখালীতে বিএনপি নেতা, বগুড়া ও লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ নেতা-কর্মী খুন


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় দুর্বৃত্তের অস্ত্রের আঘাতে খুন হয়েছেন বিএনপির এক নেতা। তার বাঁ হাত, বাঁ পা কেটে, চোখ উৎপাটন করে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। বগুড়ায় যুবলীগ নেতাকে হত্যা করা হয়েছে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে। অন্যদিকে লক্ষ্মীপুরে গুলিতে নিহত হয়েছেন যুবলীগ কর্মী। খবর নিজস্ব সংবাদদাতা ও স্টাফ রিপোর্টারের। কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম তালুকদার (৪৭) নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। তার বাঁ হাত, বাঁ পা কেটে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। তুলে ফেলা হয়েছে ডান চোখ। রবিবার বিকেলে একদল দুর্বৃত্ত উপর্যুপরি নৃশংসভাবে কুপিয়ে গামুরিবুনিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন রাস্তার পাশে মনিরকে অচেতন অবস্থায় ফেলে রাখা হয়। স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় আমতলী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বিকেল আনুমানিক ৪ টার দিকে মনিরুল ইসলাম শান্তিপুর গ্রামের বাড়ি থেকে টমটমে আমতলীর কচুপাত্রা বাজারে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে গামুরিবুনিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে একদল সন্ত্রাসী তাকে টমটম থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ফেলে যায়।

বগুড়া শহরের ফুলতলা এলাকায় রবিবার সন্ধ্যায় যুবলীগের নেতা রঞ্জু প্রামানিককে (৩২) রাম দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পরই ওই এলাকায় দুই বাড়িতে আগুন লাগানো হয়। ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নেভায়। পুলিশের ধারণা, আধিপত্য বিস্তারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকা- ঘটেছে। নিহত রঞ্জু শাজাহানপুর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক। এলাকাবাসী জানায়, সন্ধ্যায় রঞ্জু তাঁর বাড়ির সামনে দাঁড়িয়েছিল। এ সময় মোটরসাইকেল নিয়ে কয়েকজন এসে রাম দা দিয়ে রঞ্জুকে উপর্যুপরি কুপিয়ে চলে যায়। শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।