২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হেলপার মারা গেছে ॥ চালকের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন


স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ বগুড়ায় পেট্রোলবোমায় দগ্ধ চার জনের একজন ট্রাকের হেলপার আসিব উদ্দিন (৩২) রবিবার সকালে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে মারা গেছে। বাকি তিন জনের মধ্যে ট্রাকচালক গোলাম মোস্তফার (৩৫) অবস্থাও শঙ্কটাপন্ন। চিকিৎসক বলেছেন তাঁর শ্বাসনালীর অনেকটাই পুড়ে গেছে। দ্রুত সার্জারি করতে হবে। শনিবার রাত নয়টার দিকে বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের রূপিহার এলাকায় বগুড়ার দিকে যাওয়া সবজি পরিবহনের ট্রাকে দুর্বৃত্তরা পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করলে ৪ জন দগ্ধ হয়। তারা হলো নাটোরের সিংড়ার খসরাত গ্রামের আব্দুল আজিজ (৪৫), একই এলাকার জাহাঙ্গীর (২০)। এরা সবজি ব্যবসায়ী। বাকি দুইজন ট্রাকচালক গোলাম মোস্তফা (৩৫)। তাঁর বাড়ি বগুড়ার ছোট কুমিরা গ্রামে ও হেলপার আসিব উদ্দিন। তাঁর বাড়ি সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার সোনামুখি গ্রামে। বোমায় দগ্ধ আসিব উদ্দিনের বিয়ে হয় মাস কয়েক আগেই। নববিবাহিত আসিব সংসার চালাতে ট্রাক চালকের ডাকে ভাড়ায় নাটোর যায়। ফেরার পথে বগুড়া বাজারে সবজি পৌঁছে দিতে কয়েক বস্তা সবজি লোড করে। বগুড়া পৌঁছার আগে পথেই দুর্বৃত্তের পেট্রোলবোমা নিক্ষেপে দগ্ধ হয়। হাসপাতপালের বেডে তারা কাতরাচ্ছে। হরতালের কারণে স্বজনরা আসতে পারছে না। চিকিৎসক বলছেন সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ট্রাক চালকের। শ্বাসনালীর অপারেশনের জন্য যে শারীরিক অবস্থা থাকা দরকার তা নেই। আবার ঢাকায় পাঠানো যাচ্ছে না। এই রোগীদের চিকিৎসা দেয়া কঠিন। বগুড়া শজিমেকে আলাদা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারির ইউনিট নেই। সার্জাারি বিভাগের দুটি কক্ষে বিশেষ ব্যবস্থায় নারী ও পুরুষের জন্য ১০টি করে মোট ২০টি শয্যা বসানো হয়েছে। এর মধ্যেই বার্ন রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হয়।