১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নাইজিরিয়ায় অপহৃত ছাত্রীদের মুক্ত করতে পদক্ষেপ নিন


নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই (১৭) রবিবার দুই শতাধিক নাইজিরীয় স্কুলছাত্রীর মুক্তির জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সমর্থনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। বোকো হারাম জঙ্গীরা প্রায় ১০ মাস আগে এ স্কুলছাত্রীদের অপহরণ করে জিম্মি করে রেখেছে। খবর এএফপির।

মালালা বলেন, শত শত অপহৃত নাইজিরীয় স্কুলছাত্রী তিন শ’ দিন ধরে জঙ্গীদের হাতে আটক রয়েছে। এই সাহসী মেয়েদের মুক্ত করতে জরুরী পদক্ষেপ গ্রহণের দাবিতে আমার সঙ্গে যোগ দেয়ার জন্য বিশ্বের প্রতিটি মানুষের প্রতি আমি আহ্বান জানাচ্ছি। গত বছর ১৪ এপ্রিল উত্তর-পূর্ব নাইজিরিয়ার বর্ণো রাজ্যের দূরবর্তী চিবোক এলাকার একটি স্কুল থেকে বোকো হারাম জঙ্গীরা ২শ’ ৭৬ স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে। এদের মধ্যে ৫৭ জন সেখান থেকে পালিয়ে যায়। কিন্তু ২শ’ ১৯ জন এখনও সেখানে আটক রয়েছে। সামরিক বাহিনী যদিও বলেছে, তাদের অবস্থান জানা গেছে। কিন্তু প্রতিকূল পরিস্থিতির জন্য তাদের উদ্ধার অভিযান চালানো যাচ্ছে না এখনও। বোকো হারাম নেতা আবু বকর শেকাউ বলেছেন, তারা অপহৃত মেয়েদের জোর করে ইসলামে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে দিয়েছেন। মালালা গত বছর জুলাই মাসে নাইজিরিয়া সফর করেন। স্কুল ছাত্রীদের মুক্তির ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে দেশটির প্রেসিডেন্ট গুডলাক জোনাথানের আহ্বান জানিয়েছেন। মালালা ইউসুফজাই তার স্কুলে যাওয়ার ব্যাপারে জঙ্গীদের হুমকি উপেক্ষা করায় পাকিস্তানী তালেবান জঙ্গীরা তাকে গুলি করে। রবিবার মালালা বলেন, এ সঙ্কট সমাধানে আবুজার সরকার ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরও উদ্যোগ নিতে হবে। তিনি এক বিবৃতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, জিম্মি ছাত্রীরা রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে ক্ষমতাধরদের সন্তান হলে তাদের উদ্ধারে আরও কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হতো। কিন্তু তারা নাইজিরিয়ার দরিদ্র উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাসিন্দা। তাই অপহরণের পর খুব কমই চেষ্টা করা হয়েছে। আগামী নির্বাচনে জয়ী রাজনীতিবিদদের জিম্মি সব ছাত্রীকে মুক্ত করার অঙ্গীকার এবং নাইজিরিয়ার সব ছেলেমেয়ের শিক্ষা নিশ্চিত করা নতুন সরকারের প্রথম এক শ’ দিনের অগ্রাধিকার হওয়া উচিত। এই দুঃসহ ঘটনার অবসান হওয়া উচিত। নেতৃবৃন্দকে জিম্মি ছাত্রীদের উদ্ধার নিশ্চিত করতে হবে।