২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাবা-স্বামী দু’জনকেই পুড়িয়ে মেরেছে, আমি কোথায় যাব ?


নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ৭ ফেব্রুয়ারি ॥ শনিবার ভোরে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার দক্ষিণ মাহিলারা বাজার এলাকায় হরতাল-অবরোধকারীরা ট্রাকে পেট্রোলবোমা মেরে আগুন দিলে মারা যান ট্রাকচালক ইজাজুল ইসলাম (৩৫), হেলপার মন্নু বিশ্বাস (৪৭) ও ইজাজুলের শ্বশুর মোতালেব শেখ (৬৫)। তাদের সবারই বাড়ি ফরিদপুর সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে। নিহতদের বাড়িতে বর্তমানে চলছে আহাজারি আর শোকের মাতম।

ট্রাকটি ফরিদপুর থেকে পোলট্রি ফিড নিয়ে বরিশাল যাচ্ছিল। ট্রাকের চালক ইজাজুল ইসলামের বাড়ি ফরিদপুর সদর উপজেলার কৈজুরি ইউনিয়নের ডোমরাকান্দি গ্রামে। ইজাজুল ফরিদপুরের সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে। ৪ ভাইয়ের মধ্যে তৃতীয় ছিলেন তিনি। পরিবারে স্ত্রী ও দুই মেয়ে। বড় মেয়ে ইলা ওরফে চৈতী (৯) স্থানীয় ডোমরাকান্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী। ছোট মেয়ে ইলার বয়স তিন বছর। দুই মেয়ে নিয়ে এই দম্পতি ডোমরাকান্দি গ্রামে টিনের ঘরে ভাড়া থাকেন। একা ইজাজুলের রোজগারেই চলত সংসার। দুই সন্তান নিয়ে বেঁচে থাকার আর কোন অবলম্বন রইল এই পরিবারের। স্ত্রী রিতা বেগম (২৮) জানান, কি অপরাধ, কি অন্যায় করেছিল আমার স্বামী। পেটের দায়ে ট্রাক চালাতে গিয়েছিল।

ছাত্রদল নেতা মানিকগঞ্জে গ্রেফতার

বরিশালে বোমা হামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, মানিকগঞ্জ, ৭ ফেব্রুয়ারি ॥ বরিশালের উজিরপুরে ও গৌরনদী উপজেলায় পেট্রোলবোমায় অগ্নিদগ্ধ চারজন নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি ছাত্রদল নেতা সাইদুর বেপারীকে (৩৫) গেফতার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার বিকেলে মানিকগঞ্জের শিবালয়ের বরঙ্গাইল এলাকায় একটি বাস থেকে তাকে গেফতার করা হয়। সাইদুর উজিরপুর উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। তাঁর বাড়ি উজিরপুর উপজেলার হস্তিসুন্দ গ্রামে। শিবালয় থানার পুলিশ জানায়, গত ১৮ জানুয়ারি উজিরপুর উপজেলা এলাকায় একটি ট্রাকে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করলে সোহাগ নিহত হন। শনিবার রাতে গৌরনদী উপজেলায় আরও একটি ট্রাকে পেট্রোলবোমা ছুড়লে এতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ট্রাক চালক ইজাজুুল হক (৩৫), তার শ্বশুর মোতালেব হোসেন (৬৫) ও হেলপার মুন্না বিশ^াস (৪৫) নিহত হন।