১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সাদুল্যাপুরে যৌতুক না দেয়ায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ০৩ ফেব্রুয়ারি ॥ যৌতুকের জন্য সাদুল্যাপুর উপজেলার গোলাপী রাণী (৩০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করেছে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

জানা গেছে, উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের মহিপুর গ্রাম থেকে সোমবার রাত সাড়ে ১০ টায় পুলিশ এই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে। মঙ্গলবার গৃহবধূর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

উল্লেখ্য, এক সন্তানের জননী গোলাপী রানী উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের মহিপুর গ্রামের অতুল কুমারের স্ত্রী ও গাইবান্ধা সদর উপজেলার কলেজপাড়া গ্রামের দিলীপ সরকারের মেয়ে। বিনয় মোড়লের ছেলে অতুল কুমারের সঙ্গে দুই বছর আগে গোলাপী রানীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে যৌতুকের দাবিতে গোলাপীর ওপর নির্যাতন চালাতো স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন।

সোমবার সন্ধ্যায় স্বামী অতুল কুমার যৌতুক দাবি করে গোলাপীকে তার বাবার কাছ থেকে টাকা নিয়ে আসতে বলে। এতে গোলাপী রাজি না হলে স্বামী অতুল কুমার ও তার পরিবারের লোকজন গোলাপীকে বেদম মারধর করলে সে নিহত হয়। এই ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন গোলাপী হার্ট এ্যাটাকে মারা গেছে বলে অপপ্রচার চালায়। বিষয়টি জানাজানি হলে গোলাপীর বাবার বাড়ির লোকজন এসে বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ রাতেই গোলাপীর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

সাদুল্যাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় গোলাপীর বড় ভাই রতন সরকার বাদী হয়ে সাদুল্যাপুর থানায় মঙ্গলবার সকালে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর থেকে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিপ্রবি’তে নতুন উপাচার্য

নিজস্ব সংবাদদাতা, গোপালগঞ্জ, ৩ ফেব্রুয়ারি ॥ জাতির জনকের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন ও তাঁর কবর জিয়ারত করে কর্মদিবস শুরু করেছেন গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নব-নিযুক্ত ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. খন্দকার মোঃ নাসিরউদ্দীন। তিনি মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় যান এবং পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের মাধ্যমে জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মোঃ জাকির হোসেন, বিজ্ঞান বিভাগের ডীন প্রফেসর আব্দুস সাত্তার, বিজনেস বিভাগের ডীন প্রফেসর ড. এএফএম আশরাফ আলী, ফার্মাসি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আব্দুর রহিম খান, প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্্জাহান, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর দীলিপ কুমার নাথ, বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এ্যান্ড বাংলাদেশ স্টাডিজের পরিচালক প্রফেসর শহীদুল ইসলামসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগের কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থী সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সোমবার বিকেলে ভিসি ড. খন্দকার নাসির উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দেন।