১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

টুথপেস্ট নাকি টুথ পাউডার?


টুথপেস্টে বিদ্যমান ফ্লোরাইড যদি অধিক পরিমাণে থাকে তাহলে তা দাঁতে ফ্লোরোসিস করতে পারে। এক্ষেত্রে দাঁতের এনামেলে সাদা দাগের সৃষ্টি হয়ে থাকে যার কারণে দাঁতের গঠন মজবুত হতে পারে না। শিশুরা মাঝে মাঝে টুথপেস্টকে খাদ্য মনে করে গিলে ফেলে যার কারণে স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে। এ ছাড়া টুথপেস্টে বিদ্যমান এসএলএস বা সোডিয়াম লরিল সালফেট মুখ ও জিহ্বায় আলসার বা ঘা সৃষ্টি করতে পারে। টুথপেস্টে এসএলএস ব্যবহৃত হয় ফেনা উৎপন্ন করার জন্য যা কখনও কখনও মুখের ক্ষতি করতে পারে। এক্ষেত্রে বিকল্প হিসেবে টুথ পাউডার ব্যবহার করা যায়। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে হারবাল টুথপেস্ট ও পাউডার ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। আমাদের দেশে হারবাল টুথ পাউডারগুলোর মধ্যে থানভী দন্ত শেফা দাঁত ও মুখের যতেœ বিগত ৩০ বছর ধরে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। বিএসটি আই কর্তৃক অনুমোদিত টুথ পাউডার ‘থানভী দন্ত শেফাতে’ প্রধানত যেসব উপাদান বিদ্যমান তা হলো শুঁঠ, হরতকি, দারচিনি, লবঙ্গ, কর্পূর এবং গোলমরিচ। টুথ পাউডারে কোন দাঁত ক্ষয়কারী কয়লা বা ছাই জাতীয় কোন পদার্থ নেই। থানভী দন্ত শেফাতে বিদ্যমান লবঙ্গ দাঁতের ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে থাকে। এছাড়া অন্যান্য উপাদানগুলো মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে থাকে। একটি কথা না লিখলেই নয় যারা তামাক পাতা সেবন করে তাদের জন্য থানভী দন্ত শেফাই সম্ভবত সবচেয়ে কার্যকর। তবে টুথপেস্ট এবং টুথ পাউডার নিয়ে বিতর্ক রয়েছে, যেমন রয়েছে টুথব্রাশ এবং নিমের ডাল বা জয়তুনের ডাল নিয়ে। যাই হোক টুথপেস্ট ও টুথ পাউডার নিয়ে যত বিতর্কই থাকুক না কেন আমাদের যা খেয়াল রাখতে হবে তা হলো টুথ পাউডার এবং টুথপেস্টে যেন ক্ষতিকর কোন উপাদান না থাকে যা দাঁত ও মুখের ক্ষতি করতে পারে।

ডা. মো. ফারুক হোসেন

মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ

মোবাইল : ০১৮১৭৫২১৮৯৭