১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বার্ন ইউনিটে ৩৪ দগ্ধ রোগীকে যাকাত বোর্ডের অর্থ সাহায্য


স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি-জামায়াতের চলমান সহিংসতায় দগ্ধ হয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ৩৪ জন রোগীকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের যাকাত বোর্ড। প্রতিজনকে সাড়ে ১২ হাজার টাকা করে চার লাখ ২৫ হাজার টাকা প্রদান করেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। সোমবার দুপুরে বার্ন ইউনিটের তৃতীয় তলার সভাকক্ষে রোগীদের স্বজনের হতে তিনি এ অনুদানের অর্থ তুলে দেন। এ সময় তিনি অসুস্থ রোগীদের দ্রুত আরোগ্যলাভ এবং দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করেন।এ সময় স্বজনদের উদ্দেশে মন্ত্রী মতিউর রহমান বলেন, আপনাদের যে ক্ষতি হয়েছে এ অর্থ তার কাছে সামান্য। তারপরও আপনাদের দুঃসময়ে যতটুকু পারছি সহায়তায় করছি। আশা করছি, আবারও আপনাদের পাশে দাঁড়াতে পারব। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে যাকাত ফান্ড থেকে হরতাল-অবরোধে অগ্নিদগ্ধ ৩৪ রোগীর প্রতিজনকে সাড়ে ১২ হাজার টাকা করে চার লাখ ২৫ হাজার টাকা প্রদান করেছি। তবে রোগীর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। হারতাল-অবরোধের কঠোর সমালোচনা করে ধর্মমন্ত্রী বলেন, আন্দোলনের নামে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করা। ইসলাম সমর্থন করে না। যারা এ কাজ করছে তারা ইসলাম ও মুসলমানের শত্রু।

যারা সহায়তা পেলেন ॥ ময়মনসিংহের সিএনজিচালক সিদ্দিকুর রহমান, ঢাকার কমলাপুরের লেগুনাচালক সেলিম, কুমিল্লার ট্রাকচালক পিয়ার আহমদ, রাজশাহীর ট্রাকচালক সিদ্দিক, বসিলার আরমান, ফেনীর ব্যবসায়ী মাইনউদ্দিন, যশোরের ট্রাকচালক মিলন, ঢাকার বেইলী রোডের বিল্লাল, গাইবান্ধার মিনারা, নারায়ণগঞ্জের মোঃ সালাহ উদ্দিন ভূঁইয়া, খোকন, আবুল হোসেন, মাসুদ, রংপুরের মিঠাপুকুরের নওশাদ, চাঁদপুরের সিএনজিচালক আনোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জের সালাউদ্দিন পলাশ, সুমন, মোঃ রুবেল, নাজমুল ও জাবেদ, গাজীপুরের জমির আলী, সিরাজগঞ্জের সায়েম, মানিকগঞ্জের ওসমান গনি, যাত্রাবাড়ীর ইয়াসির আরাফাত, পিরোজপুরের টিটন, খাগড়াছড়ির রাশেদ, রূপগঞ্জের বিল্লাল হোসেন, ফরিদপুরের সুজন, জীবন আহমেদ, খাদিজা, বেলায়েত, আলহাজ জামাল উদ্দিন ও আবুল কাশেম।