২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাজশাহী নগরীতে যাত্রীবেশে ছিনতাই বাড়ছে


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী নগরীতে বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে অটোরিকশায় চলাচল। অটোরিকশায় যাত্রীবেশে উঠে পাশের যাত্রীর গলায় চাকু-ছুরি ধরে চলছে ছিনতাই। অটোরিকশার মধ্যেই ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতের ঘটনা উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে ।

নগরীর ভদ্রার মোড়, রেলস্টেশন, শিরোইল, রেলগেট, বর্ণালীর মোড়, কাদিরগঞ্জ, ঘোষপাড়ার মোড়, সিমলা পার্ক, জিয়া শিশু পার্কসহ বিভিন্নস্থানে প্রতিদিনই ঘটছে ছিনতাইয়ের ঘটনা। গত মঙ্গলবার রাতে রেলগেট থেকে অটোরিকশাযোগে মেডিক্যাল হোস্টেলে যাওয়ার পথে বর্ণালীর মোড়ে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে মেডিক্যাল কলেজের দুই শিক্ষার্থী জখম হন। এর আগে রবিবার সন্ধ্যায় সাহেববাজার থেকে কোর্ট যাওয়ার পথে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার সংলগ্ন মন্দিরের সামনে সড়কে কয়েক যাত্রীবেশী এক শিক্ষার্থীর নগদ ১৩শ’ টাকা ও একটি মোবাইল ছিনতাই করে। একই রাতে মেরাজ (২১) ও রাব্বি (২০) নামের দুই ছাত্র জখম হয় অটোরিকশায় যাত্রীবেশী ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে। এর আগে গত ৮ জানুয়ারি রাত নয়টার দিকে শিরোইল এলাকায় ছিনতাইকারীর কবলে ছুরিকাঘাতে আহত হন এক পুলিশ কনস্টেবলের ছেলে নাজমুল হোসেন।

রাজশাহী পিডিবি’র নির্বাহী প্রকোশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন অভিযোগ করেন, চলতি জানুয়ারি মাসেই ভদ্রা এলাকায় ৮ থেকে ১০টি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। প্রতিদিনই সন্ধ্যার পর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ওই এলাকায় ছিনতাইকারীরা অবস্থান নেয়। মোটরসাইকেলযোগে ছিনতাইকারী চক্রও এখন সক্রিয় হয়ে উঠেছে। ছিনতাইকারীরা চাকু, ছুরিসহ বিভিন্ন অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রতিদিন কারো মোবাইল, নগদ টাকাসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেড়ে নিচ্ছে। ছিনতাইয়ের ঘটনা শুধু রাতেই নয়, দিনেও ঘটছে। সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারীরা যাত্রীবেশে অটোরিকশায় উঠে একের পর এক ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটাচ্ছে। অনেকেই পুলিশি ঝামেলার কারণে ফাঁড়ি বা থানায় অভিযোগ দিতে চান না। মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার ইফতেখায়ের আলম বলেন, ছিনতাইকারীদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।