২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অধ্যাত্মবাদের সুরেলা ধ্বনি ছড়িয়ে শেষ হলো সুফি সঙ্গীত উৎসব


স্টাফ রিপোর্টার ॥ অধ্যাত্মবাদের সুরেলা শব্দধ্বনি ছড়িয়ে শেষ হলো সূফি সঙ্গীত উৎসব। রাজধানীর বিজয় সরণির সামরিক জাদুঘর প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত তিন দিনের এ সঙ্গীতাসরের সমাপনী দিন ছিল বৃহস্পতিবার। প্রথম দুই দিনের তৃতীয় দিনে শ্রোতার উপস্থিতি ছিল অনেক বেশি। বৈচিত্র্যময় ও সহজিয়া ধারার ভক্তিমূলক সূফি গানের ধারায় স্নাত হয়েছে সঙ্গীতপ্রেমীরা। আর তৃতীয় রজনীর অন্যতম আকর্ষণ ছিলেন পাকিস্তানের বিখ্যাত সূফি সঙ্গীতশিল্পী রাহাত ফতেহ আলী খানের পরিবেশনা। কাওয়ালী ও গজলের অন্যবদ্য গায়কীতে শ্রোতার হৃদয়ে ছড়িয়ে দেন অপার স্নিগ্ধ অনুভূতি। এছাড়াও এদিনের পরিবেশনায় অংশ নেন বাংলাদেশের লাবিক কমল গৌরব এবং ডেনমার্কের সেরেনাস ও স্পেনের জিকর।

সূফি গানে আট দেশের শিল্পীদের অংশগ্রহণে মঙ্গলবার থেকে শুরু হয় তিন দিনব্যাপী সূফি ফেস্ট ঢাকা ২০১৫। এ উৎসবে অংশ নেয় বাংলাদেশের রব ফকির, শফি ম-ল, অর্ণবের পাশাপাশি ভারতের জাবেদ আলী, মনোয়ার মাসুম ও পাকিস্তানের রাহাত ফতেহ আলী খানের মতো বিশ্বখ্যাত শিল্পীবৃন্দ। আর এ সঙ্গীতাসরের আয়োজন করে ব্লুজ কমিউনিকেশনস।

লাবিক কমল গৌরবের পরিবেশনা দিয়ে শুরু হয় সমাপনী রাতের সঙ্গীতাসর। এরপর ডেনমার্কের সেরেনাস ও স্পেনের পরিবেশনায় বিমোহিত শ্রোতা ও দর্শকবৃন্দ। সব শেষে মঞ্চে আসেন রাহাত ফতেহ আলী খান। অনন্য কণ্ঠ মাধুর্য ও বৈচিত্র্যময় গায়কীতে আলোড়ন তোলেন শ্রোতার হৃদয়তন্ত্রীতে। বুনে দেন মুগ্ধতার বীজ।

‘মুক্তপ্রাণ চলচ্চিত্র উৎসব’

স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতাদের চলচ্চিত্র নিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হলো দুই দিনব্যাপী ‘মুক্তপ্রাণ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৫’। রনেশ দাশগুপ্ত চলচ্চিত্র সংসদের এর আয়োজনে এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতায় বিকেলে বসে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত ও নৃত্যশালা মিলনায়াতনে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও চলচ্চিত্র নির্মাতা মসিহউদ্দিন শাকের।

প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। উৎসবটি চলবে আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত।

ছবিমেলায় রিকশাভ্যানের ভ্রাম্যমাণ প্রদর্শনী ॥ দৃক পিকচার লাইব্রেরী এবং পাঠশালা সাউথ এশিয়ান মিডিয়া ইন্সটিটিউটের আয়োজনে রাজধানীতে চলছে এশিয়ার সর্ববৃহৎ আলোকচিত্র উৎসব ছবিমেলার অষ্টম আসর। মেলায় অংশ নেয়া দেশী-বিদেশী অতিথিদের মতে ছবিমেলা-৮-এর সবচেয়ে প্রিয় দিনটি ছিল বৃহস্পতিবার।

দিনের সবচেয়ে আকর্ষণীয় আয়োজনটি বিকেলে। মানিক মিয়া এভিনিউতে সারিবদ্ধভাবে রিকশাভ্যানের ছিল ভ্রাম্যমাণ প্রদর্শনী যা সকলের জন্য উন্মুক্ত।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় গ্যাটে ইন্সটিটিউটে উৎসব পরিচালক এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের লেকচার ‘সো ইউ হ্যাভ টেকেন সাম গ্রেটপিকচারস। নাও ওয়াট?’-এর মাধ্যমে দিনের কর্মসূচী শুরু। এরপরই একই ভেন্যুতে ছিল ভারতীয় আলোকচিত্রী মহেশ শান্তরামের সঙ্গে আর্টিস্ট টক। ছবিমেলা ৮ উপলক্ষে এই আলোকচিত্রীর ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে পুরান ঢাকার বিউটি বোর্ডিংয়ে।