২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

আমরা ল ব্রেকার না হয়ে যেন ল মেকার হই


সংসদ রিপোর্টার ॥ শুধু দেশের সাধারণ মানুষই নন, অনেক ভিআইপি ও অসাধারণ মানুষও আইন মানেন না বলেই সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বেপরোয়া বা অদক্ষ গাড়ি চালকের কারণে শুধু দুর্ঘটনা ঘটে তা নয়, আপনারা কেউ বেপরোয়া পথচারীর কথা বলছেন না। পথচারীদের কেউ কেউ মোবাইল ফোনে ‘মধু আলাপন’ করতে করতে রাস্তা পার হয়, তখন গাড়ি চাপা দিয়ে চলে গেলে এটা কী শুধু বেপরোয়া চালকের দোষ?

বুধবার রাতে জাতীয় সংসদে কার্যপ্রণালী বিধি-৭১ বিধি অনুসারে সরকারদলীয় সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতউল্লাহ আনীত নোটিসের জবাব দিতে গিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন। ক্ষোভ প্রকাশ করে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের ‘ল’ মেকাররা (সংসদ সদস্য) অনেক সময় ‘ল’ ব্রেকার (ভঙ্গ) হয়ে যায়। এখন নীলক্ষেতে জাতীয় সংসদের স্টিকার পাওয়া যায়। জাতীয় সংসদের স্টিকার লাগিয়ে বাসার কাজের লোকরাও অনেক সময় বাজার করতে যায়। আমরা অসাধারণ মানুষ অনেক সময় রাস্তার শৃঙ্খলা মানি না কিন্তু অনেক সাধারণ মানুষই শৃঙ্খলা মানে। অনেক সময় ভিআইপিরাও রাস্তা পারাপার হয় রং সাইড দিয়ে।

সংসদ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা যেন ‘ল’ ব্রেকার না হই, ‘ল’ মেকার হই। আমরা যেন ট্রাফিক আইন মেনে চলি। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, একজন ভিআইপি যখন আইন ভঙ্গ করে তখন পুলিশ তাঁদের কীভাবে বাধা দেবে? ভিআইপিদের অনেকেই ট্রাফিক সিগন্যাল মানেন না, এতে ট্রাফিক পুলিশের সমস্যায় পড়তে হয়। তিনি বলেন, আমাদের সকলেরই উচিত আইন মেনে চলা।

বিআরটিএর পূর্বের অবস্থার কথা তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, এক সময় বিআরটিএ ছিল অনিয়ম আর দুর্নীতির প্রতিষ্ঠান। আমরা শক্ত হাতে এ সংস্থার ৫০ শতাংশ দুর্নীতি কমিয়েছি। এ সব সমস্যা সমাধানের সম্মিলিত পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। শুধু সড়ক জনপথ বা সেতু বিভাগের এ দায়িত্ব না। স্থানীয় সরকার ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েরও দায়িত্ব আছে।

তিনি আরও বলেন, এক সময় ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার মরণ ফাঁদ ছিল। আমরা কিছু পদক্ষেপ নেয়ার ফলে সেখানে দুর্ঘটনা সহনীয় পর্যায়ে নেমে এসেছে। দুর্ঘটনা-যানজট দূর করতে সম্মিলিত পদক্ষেপ নেয়া দরকার। মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে চালু হয়ে গেলে এ সব সমস্যা অনেক কমে যাবে। মন্ত্রী বলেন, হাইওয়েগুলোতে নসিমন-করিমন চলাচল করে। এগুলো দুর্ঘটনার বড় কারণ। এ ধরনের অ-অনুমোদিত যানবাহনকে চলাচলে উৎসাহিত করবেন না।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: