১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

যারা গেট খোলে না তাদের সঙ্গে সংলাপ নয় ॥ হাছান মাহমুদ


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ দেশের জনগণ পেট্রোল বোমাবাজদের গণপিটুনি দেয়া শুরু করেছে। নেপথ্যের কারিগররাও রেহাই পাবে না। সাধারণ মানুষ তাদেরও খুঁজে বের করে গণপিটুনি দেবে। যারা গেট খোলে না তাদের সঙ্গে কোন সংলাপ হবে না। যে ইনজেকশনের কারণে বিএনপি নেত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে পারেননি, সেই একই ইনজেকশন দিয়ে জনগণও আপনাদের ঘুম পাড়িয়ে রাখবে।

বুধবার চট্টগ্রামের লালদীঘি মাঠে নাশকতা, সহিংসতা ও নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে আয়োজিত ১৪ দলের সমাবেশে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, সংসদ সদস্য মইনুদ্দিন খান বাদল, চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা সফল আলী, জাসদ নেতা জসিম উদ্দিন বাবুল ও সাম্যবাদী দলের অমুল্য বড়ুয়া। এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট এদেশের ভবিষ্যত প্রজন্মকে ধংস করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। তারা শিশুদের শিক্ষা জীবন ধ্বংস করতে হরতাল অবরোধ দিয়ে রেখেছে। কিন্তু তাদের ভয়ে পরীক্ষা পেছাবে না। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কোন ক্ষতি করার চেষ্টা করা হলে কাউকে রেহাই দেয়া হবে না। মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, নাশকতার জন্য কারা রসদ যোগাচ্ছে, কাদের বাড়িতে বোমা তৈরি হচ্ছে ও কোন কোন বাড়িতে নাশকতার পরিকল্পনা হয় সে তালিকা আমাদের হাতে রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের গায়ে হাত দেয়ার পরিণতি ভয়াবহ হবে বলে তিনি হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেন, রক্তক্ষয়ী সংগ্রামে পাওয়া মাতৃভূমি ধ্বংসের অপতৎপরতা আমরা বেঁচে থাকতে কখনও হতে দেব না। তিনি নাশকতা বন্ধে নিরাপত্তা বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য ১৪ দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: