২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে আইসিসি


স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগে অবস্থিত আইসিসি বলেছে, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে আন্তর্জার্তিক আইন মেনে চলায় বাংলাদেশ খুবই প্রশংসার যোগ্য। সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এদিকে দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার আইনমন্ত্রী আনিসুল হক নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগে আইসিসি অফিসে সংস্থার সভাপতি স্যাঙ হাইয়ুন সঙ ও প্রসিকিউটির ফাতো বেসাউদার সঙ্গে দিনব্যাপী বৈঠক করেন। বৈঠকে বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও আইনের শাসনের নানা দিক তুলে ধরেন আনিসুল হক।

বৈঠকে আইসিসির প্রসিকিউটর বেসাউদা বাংলাদেশের বীরাঙ্গনা নারীদের বিষয়ে জানতে চান। এসব নারীদের জন্য বাংলাদেশ সরকার থেকে কোন ধরনের সহায়তা দেয়া হচ্ছে, তাও জানতে চান তিনি। এ সময় আইসিসির প্রসিকিউটর বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধ বিচার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলার জন্য বাংলাদেশ সরকারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এ প্রেক্ষিতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, আইসিসির প্রসিকিউটরকে ধন্যবাদ জানান। একই সঙ্গে বীরাঙ্গনা নারীদের জন্য বাংলাদেশ সরকার থেকে যেসব সহায়তার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, সেটা অবহিত করেন।

এ সময় আইসিসির ডেপুটি প্রসিকিউটর জেমস স্টেওয়ার্ট, বিশেষ সহকারী স্যাম শোয়াম্যানস, সিনিয়র আইন উপদেষ্টা শামিলা বাতোই, নেদারল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মোহাম্মাদ বেলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন রাষ্ট্রদূত ॥ দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন কূটনীতিক জুলফিকার রহমান। তিনি বর্তমানে তুরস্কে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার ও অনুবিভাগের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জুলফিকার রহমান দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন রাষ্ট্রদূত হিসেবে পালন করবেন। তিনি বিসিএস (পররাষ্ট্র) ক্যাডারের নবম ব্যাচের কর্মকর্তা। তুর্কি রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালনের আগে জুলফিকার রহমান নয়াদিল্লী দূতাবাস ও নিউইয়র্কে জাতিসংঘ স্থায়ী মিশনে দায়িত্ব পালন করেন। তারও আগে দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশের মানামা দূতাবাস এবং লস এ্যাঞ্জেলস কনস্যুলেটে। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস উত্তীর্ণ এই কূটনীতিক ১৯৯৪ সালে প্যারিসের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে কূটনৈতিক বিষয়ে উচ্চতর ডিপ্লোমাসম্পন্ন করেন। ব্যক্তিজীবনে বিবাহিত জুলফিকার তিন সন্তানের জনক।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: