২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিচার দাবিতে মানববন্ধন


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ প্রায় চার মাস পর রবিবার দুপুরে টঙ্গীবাড়ির উপজেলার বেশনাল গ্রামের কবর থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। পরে পুনঃ ময়নাতদন্তের জন্য আব্দুস সাত্তার দেওয়ানের (২০) লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। আদালতের নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিজন কুমার সিংহের উপস্থিতিতে এই লাশ উত্তোলন করা হয়। এই সময় তার সহপাঠী, স্বজনরা ও উপস্থিত শতশত মানুষ কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। সাত্তারের বাবা মান্নান দেওয়ান বলেন, গত বছরের ৪ অক্টোবর সন্ধ্যায় নিজ বাড়ি থেকে বন্ধু আল-আমিন মৃধা ডেকে কামারখারা সড়কে আরও কয়েকজনের সহযোগিতায় খুন হয়। তিনি জানান, ঘটনার কয়েক দিন আগে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির জের ধরে এই নির্মম ঘটনা ঘটায়। পরে ১১ নবেম্বর বন্ধু আল-আমিনকে আসামি করে মুন্সীগঞ্জ আমলী আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন তিনি। আদালত পুনঃ ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেয়। স্থানীয় রানা সফিউল্লাহ কলেজ থেকে ২০১৪ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সাত্তারের সরকারী হরগঙ্গায় ভর্তির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। ছাত্তারের চাচাত ভাই আব্দুল হাকিম বলেন, আল আমিন মৃধা এবং তার কয়েক বন্ধুদের আচরণ রহস্যজনক। ইতোমধ্যেই কয়েকজন গাঢাকা দিয়েছে। আমরা ভাই হত্যার বিচার চাই। এদিকে লাশ উত্তোলনের আগে হত্যার বিচারের দাবিতে বেশনাল থেকে পুরা বিশাল মানববন্ধন হয়।