১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

আলতাদীঘি শালবনে আঁচা পোকার উপদ্রব


নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ২৩ জানুয়ারি ॥ ধামইরহাট উপজেলার ঐতিহ্যবাহী আলতাদীঘি জাতীয় উদ্যানের প্রায় ২শ’ বছরের পুরনো শালবনে ভয়াবহ আঁচা পোকার আক্রমণ দেখা দিয়েছে। এই পোকার আক্রমণে শালবনে আক্রান্ত শালগাছের সমুদয় পাতা এবং শালগাছের নিচে গড়ে তোলা জীববৈচিত্র্য পুনঃরুদ্ধার ও সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় এনরিচমেন্ট প্লানটেশন এবং হরীতকী, বয়রা, আমলকী, জাম, ডুমুর, শিমুল, চিকরাশি, অর্জুন, গামার প্রজাতির চারাসহ গাছের পাতা পোকায় খেয়ে ঝাঁঝরা করে ফেলছে। বড় বড় শালগাছের ডালপালা মরে শালগাছ মরাকৃতি ধারণ করেছে।

শুক্রবার এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বনবিট কর্মকর্তা লক্ষ্মণ চন্দ্র ভৌমিক এই প্রতিবেদককে জানান, আলতাদীঘি জাতীয় উদ্যানের অভ্যন্তরে ৪২৭ দশমিক ৬৯ একর প্রাকৃতিক শাল বাগানের মধ্যে আনুমানিক ১৫০ একর এলাকাজুড়ে এক ধরনের পোকা যার স্থানীয় নাম ‘আঁচা পোকা’ দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে। চলতি জানুয়ারি মাসের প্রথমদিকে তিনি এই পোকার আক্রমণ দেখতে পান। তিনি তাৎক্ষণিক এই বিষয়টি পাইকবান্দা রেঞ্জ ও বিভাগীয় বন কর্মকর্তা রাজশাহী বরাবর প্রথমে মোবাইলে ও পরে পত্র প্রেরণ করেন। পাইকবান্দা রেঞ্জ অফিসার হেলাল উদ্দিন আহাম্মেদ জানান, শালবনে পোকার আক্রমণের বিষয়টি বন গবেষণাগার ইনস্টিটিউট, চট্টগ্রামের ষোলশহর কার্যালয়ে অবগত করা হয়েছে। লক্ষ্মণ চন্দ্র ভৌমিক আরও জানান, উর্ধতন কর্মকর্তাদের পরামর্শক্রমে প্রাথমিকভাবে প্রতিষেধক হিসেবে রিপকর্ড (জওচঈঙজউ) পরীক্ষামূলকভাবে স্প্রে করা হয়েছে। জীববৈচিত্র্যের যেন কোন ক্ষতি না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে এই প্রতিষেধকটি স্প্রে করা হয়েছে।

বাগানের যে অংশে ওষুধ স্প্রে করা হয়েছে সেই অংশে আঁচা পোকার ভয়াবহতা কিছুটা হলেও কমতে শুরু করেছে। তার মতে, প্রায় ২ শ’ বছরের পুরনো এই শালবনে এই প্রথম কোন ভয়াবহ পোকা বা রেগের আক্রমণ ঘটল। দ্রুত এই পোকার আক্রমণ থেকে শালবনকে রক্ষা করতে না পারলে আলতাদীঘি জাতীয় উদ্যানের গাছপালা ও জীববৈচিত্র্য রক্ষা করা হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়বে বলে স্থানীয় অভিজ্ঞ মহল মনে করছে।