২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আজ চেন্নাইয়ে সোহাগের অগ্নিপরীক্ষা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হয়ে উঠেছিলেন বাংলাদেশ দলের অপরিহার্য সদস্য। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে ডানহাতি স্পেশালিস্ট অফস্পিনারের ঘাটতি দীর্ঘদিন। সোহাগ গাজী আসার পর সেটা কাটিয়ে উঠেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) নিষেধাজ্ঞা থাকার কারণে তাঁকে বিশ্বকাপ দলেই নেয়া যায়নি। গত বছর আগস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তাঁর বোলিংয়ে ত্রুটি ধরেন আম্পায়াররা। এরপর এ্যাকশন পরীক্ষা করে তাঁর বোলিংকে অবৈধ ঘোষণা করে সাময়িকভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করা হয় সোহাগকে। তারপর থেকে ফেরার প্রচেষ্টা চালিয়ে গেছেন এ মেধাবী অফস্পিনার। এবার নিজেকে নির্ভুল প্রমাণের জন্য পরীক্ষায় অবতীর্ণ হচ্ছেন তিনি। আজ চেন্নাইয়ে আইসিসির অনুমোদিত পরীক্ষাগার শ্রীরমাচন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে বোলিং এ্যাকশনের পরীক্ষা দেবেন সোহাগ। শুক্রবার দুপুরেই চেন্নাইয়ের উদ্দেশে বিমানযোগে ঢাকা ছেড়েছেন তিনি। এবার উত্তীর্ণ না হতে পারলে অন্তত ১ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হবে তাঁকে।

এ্যাকশনে ত্রুটি থাকার কারণে সোহাগ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ হন। গত ২৪ আগস্ট ক্যারিবীয়দের বিরুদ্ধে টেস্ট চলার সময় সোহাগের বোলিং এ্যাকশনে ত্রুটি ধরেন আম্পায়াররা। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ইংল্যান্ডের কার্ডিফ মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি ল্যাবে বোলিং এ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে ৬ ওভার বল করেছিলেন। সেই বোলিংয়ে ত্রুটি ধরে গত ৮ অক্টোবর আইসিসি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁকে নিষিদ্ধ করে। আইসিসির নিয়ম অনুসারে কোন বোলার বল ছোড়ার সময় সর্বোচ্চ ১৫ ডিগ্রী পর্যন্ত কনুই বাঁকাতে পারেন। নিজের বোলিং এ্যাকশন শোধরানোর জন্য এতদিন অনুশীলন করেছেন, খেলেছেন ঘরোয়া ক্রিকেট আসর ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগেও। এমনকি জাতীয় দলের স্পিন কোচ রুয়ান কালপাগের সঙ্গেও বোলিং এ্যাকশন নিয়ে কাজ করেছেন সোহাগ। এবার সময় হয়েছে চূড়ান্ত পরীক্ষায় অবতীর্ণ হওয়ার। এটা সোহাগের জন্য অগ্নিপরীক্ষার শামিল। কারণ পাস করতে না পারলে আগামী এক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হবে। আইসিসির নিয়ম অনুসারে বোলিং এ্যাকশনের দ্বিতীয় দফা পরীক্ষাতেও এ্যাকশন ক্রটিপূর্ণ হলে পরবর্তী এক বছর পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবেন না সোহাগ। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বোলিং এ্যাকশন নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। এই কারণেই পরীক্ষা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগের বোলিং এ্যাকশন ও নতুন বোলিং এ্যাকশনের ভিডিও রিভিউ করেছি। সেগুলো দেখেই আত্মবিশ্বাস পাচ্ছি। স্পিন বোলিং কোচ রুয়ান কালপাগের সঙ্গে কাজ করেছি। আশা করছি, সবকিছু আমার পক্ষেই আসবে।’

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: