২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

টনি ক্রুস বিশ্বের সেরা প্লেমেকার


টনি ক্রুস বিশ্বের সেরা প্লেমেকার

২০১৪ আইএফএফএইচএস পরিসংখ্যান, জার্মানির বিশ্বকাপজয়ী মিডফিল্ডার হারিয়েছেন বার্সিলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসিকে, বার্সার ছয় বছরের আধিপত্যের অবসান

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আরও একটি হারের তেতো স্বাদ পেয়েছেন লিওনেল মেসি। কিছুদিন আগে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর কাছে ফিফা ব্যালন ডি’অরের মুকুট হারানো বার্সিলোনা তারকা এবার রিয়াল মাদ্রিদের আরেক তারকার কাছে হারিয়েছেন আরেকটি এ্যাওয়ার্ড। মেসিকে পেছনে ফেলে ২০১৪ সালের সেরা প্লেমেকার নির্বাচিত হয়েছেন রিয়ালের হয়ে খেলা জার্মানির বিশ্বকাপজয়ী মিডফিল্ডার টনি ক্রুস।

ফুটবল ইতিহাস ও পরিসংখ্যানের আন্তর্জাতিক সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব ফুটবল হিস্ট্রি এ্যান্ড স্ট্যাটিস্টিকস (আইএফএফএইচএস) সেরা হিসেবে ২৫ বছর বয়সী ক্রুসকে বেছে নিয়েছে। রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ডার ক্রুসের সঙ্গে বার্সিলোনার মেসির হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়। সবার সেরা হতে ক্রুস পেয়েছেন ১১০ পয়েন্ট। মাত্র দুই পয়েন্ট কম অর্থাৎ ১০৮ পয়েন্ট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন মেসি। এর ফলে আইএফএফএইচএসের বর্ষসেরা প্লেমেকারের পুরস্কারে বার্সিলোনার ছয় বছরের আধিপত্যের অবসান হয়েছে। এর আগের ছয় বছরই গৌরবময় এই পুরস্কার পান বার্সার জাভি হার্নান্দেজ ও আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। জাভি সেরা প্লেমেকার হন টানা চার বছর (২০০৮, ২০০৯, ২০১০ ও ২০১১)। আর ইনিয়েস্তা সেরা হন ২০১২ ও ২০১৩ সালে। এবার বার্সার আধিপত্য ধরে রাখার দায়িত্ব ছিল মেসির কাঁধে। কিন্তু তিনি পারেননি। কাতালানদের একতরফা শ্রেষ্ঠত্বের অবসান ঘটিয়ে সেরা হয়েছেন রিয়াল তারকা ক্রুস।

এ তালিকার জন্য বিবেচনা করা হয়নি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে। তাকে ‘এ’ ক্যাটাগরির বাইরে রেখে তালিকাটি প্রকাশ করা হয়। তবে রোনাল্ডো অন্য ক্যাটাগরিতে ২০১৪ সালের সেরা গোলদাতার এ্যাওয়ার্ড পান। কিছুদিন আগে রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগীজ তারকার নাম ঘোষণা করা হয়। আইএফএফএইচএসের প্লেমেকারের তালিকার সেরা দশে রিয়াল ও বার্সিলোনার আছে সাতজন ফুটবলার। ৫৩ পয়েন্ট পেয়ে রিয়ালের জেমস রড্রিগুয়েজ হয়েছেন তৃতীয়। চতুর্থ হওয়া বার্সিলোনার ইনিয়েস্তার পয়েন্ট ৩৮। পঞ্চম ও ষষ্ঠ হন যথাক্রমে ম্যানচেস্টার সিটির ইয়াইয়া তোরে (২৯ পয়েন্ট) ও বেয়ার্ন মিউনিখের বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগার (২৮ পয়েন্ট)। ২১ পয়েন্ট করে নিয়ে যৌথভাবে সপ্তম হন বার্সিলোনার নেইমার ও রিয়াল মাদ্রিদের লুকা মডরিচ। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে নবম হন চেলসির ইডেন হ্যাজার্ড। আর দশম হন বার্সিলোনার ইভান রাকিটিচ। তার প্রাপ্ত পয়েন্ট পাঁচ।

আইএফএফএইচএস কর্তৃপক্ষ রোনাল্ডোকে এই পুরস্কারের জন্য বিবেচনায় নেননি। সি আর সেভেনকে কয়েকদিন আগে গেল বছরের সর্বোচ্চ গোলের জন্য পুরস্কৃত করা হয়। বার্সিলোনার ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার ও আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসিকে ছাপিয়ে এই এ্যাওয়ার্ড জয় করেন ২৯ বছর বয়সী রোনাল্ডো। নিজ দেশ পর্তুগাল ও ক্লাব দল রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ২০১৪ সালে আন্তর্জাতিক আসরে সবচেয়ে গোল করার জন্য আইএফএফএইচএস পুরস্কার পান সি আর সেভেন। গেল বছর আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় সর্বোচ্চ ২০ গোল করেন রোনাল্ডো।

ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক নেইমারের আপসোস, অল্পের জন্য তিনি পুরস্কারটি জিততে পারেননি। রোনাল্ডোর চেয়ে মাত্র এক গোল কম করেছেন বার্সা তারকা। তিনি করেন ১৯ গোল। আর তার ক্লাব সতীর্থ মেসি করেন ১৮ গোল। অবশ্য নেইমার ২০১৪ সালে দেশের হয়ে অন্য যে কারও চেয়ে বেশি গোল করেন। ব্রাজিলের জার্সি গায়ে গত বছরে তার গোল ১৫টি।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: