২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

হাতিয়ায় পরিত্যক্ত ভবনে পুলিশ-আসামির বসবাস


সংবাদদাতা, হাতিয়া, নোয়াখালী, ১৮ জানুয়ারি ॥ দেশের মূল ভূ-খণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার পরিত্যক্ত আদালত ভবনে মৃত্যুঝুঁকি নিয়ে পুলিশ ও আসামিরা দিনযাপন করছেন। উপজেলার আদালত পুলিশ সদস্যদের জন্য কোন ব্যারাক না থাকায় তাঁদের এ ভবনে থাকতে হয়। পাশাপাশি আসামিদের রাখার জন্য কোন সাব-জেল না থাকায় তাঁদেরকেও একই ভবনে রাখা হয়। যে কোন মুহূর্তে ঘটতে পারে দুর্ঘটনা এবং প্রাণহানি। অন্যদিকে এ পরিত্যক্ত ভবনের পরিবর্তে নতুন ভবন নির্মাণ কাজের কোন উদ্যোগও নেয়।

জানা যায়, দেশের মূল জনপদ তথা নোয়াখালীর মূল ভূ-খ- থেকে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়া ৬ লাখ মানুষের বসবাস। এ অঞ্চলের মানুষদের বিচার কাজ পরিচালনার জন্য শত বছর আগে ১৯১২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে হাতিয়ার দেওয়ানী ও ফৌজদারী আদালত। নদী ভাঙ্গা এ জনপদের ভাঙ্গা-গড়ার খেলা কয়েকবার আদালত ভবন নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে।

সর্বশেষ ১৯৮৬ সালে পুরানো আদালত ভবন মেঘনার গর্ভে বিলীন হলে তা ওছখালীতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে ১৯৮৮ সালে নতুন করে নির্মাণ করা হয়েছে আদালত ভবন। কিন্তু ২০১৩ সালের শেষের দিকে আদালত চলাকালীন সময়ে এজলাশের ওপরের ছাদ ধসে পড়ে। যদিও এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়। দুর্ঘটনা পর নোয়াখালীর জেলা জজ আদালত ভবনটি পরিদর্শন করেন। পরে পিডাব্লিউডির প্রকৌশলী এসে ভবনটিকে সম্পূর্ণভাবে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন।