২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

যারা অবরোধ দেয় তাগর তো ভাতের চিন্তা নাই


সংবাদদাতা, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর, ১৮ জানুয়ারি ॥ ‘যারা অবরোধ-হরতাল দেয় হেগ বাড়ি-গাড়ি সবই আছে। তাগর তো ভাত-কাপড়ের চিন্তা নাই। তাই মন চাইলেই অবরোধ ও হরতাল দেয়। কিন্তু আমরা গরিব মানুষ। সারাক্ষণ পেটের চিন্তা করতে হয়। টানা ১১ দিন ধরে অবরোধ ও হরতালে, ঢাকা থেইক্যা চাইল-ডালের কোন ট্রাক আইতাছে না। তাই আমাগ কোন কাজকামও নাই। আমগ মতো গরিব মাইনষের সংসার কেমনে চলব, তা অবরোধ ও হরতাল ডাকা খালেদা জিয়া বুঝে না।

২০ দলের ডাকা টানা অবরোধের ১৩ দিন পার হওয়ার পর এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করে কথাগুলো বলছিলেন দিনমজুর আনোয়ার মিয়া (৩৫)। তিনি রায়পুর পৌর শহরের গোডাউন রোডের চালের আড়ৎতে ট্রাক থেকে বস্তার কাজ করেন। আনোয়ার জানান, সারাদিন কাজ করে মালিক যে মজুরি দেন তা দিয়েই কোন মতে ৫ জনের সংসার চালান। তাই রায়পুর বাস টার্মিনালে বসে অলস সময় কাটাচ্ছিলেন। সে বলে, চলছে টানা অবরোধ। ফলে ১০ দিন গাড়ি বন্ধ। গাড়ি বন্ধ থাকলে মালিক তো খোরাকির টাকা দেয় না। এভাবে চললে পাগল হইয়া যামু। যেই অবরোধ ও হরতালে আমরার কামাই-রোজগার বন্ধ হইয়া যায় আমরা এমন অবরোধ ও হরতাল চাই না। বউ পোলাপান লইয়া খাইয়া না খাইয়া থাকতে হয়।