১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বাবা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ১৫ জানুয়ারি ॥ বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বাবা ও মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী মেয়েকে কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতরা হলো গাজীপুর মহানগরের উত্তর সালনা এলাকার সাইফুল ইসলাম (৪৫) ও তার মেয়ে আঁখি আক্তার (১৫)। নিহত আঁখি এ বছর স্থানীয় পোড়াবাড়ি এলাকার ফকির শাহ্ ফসিহ্ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও স্কুলের শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ ও মহাসড়ক অবরোধ করে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, গাজীপুর মহানগরের উত্তর সালনা এলাকার আলা উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে নিজ বাড়িতেই বসবাস করতেন। প্রতিদিনের মতো বুধবার দিবাগত রাতে মেয়েকে নিয়ে সাইফুল ইসলাম নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। বৃহস্পতিবার ভোরে দুর্বৃত্তরা ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে ধারাল অস্ত্র দিয়ে সাইফুল ইসলাম ও তার মেয়ে আঁখিকে মাথাসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। আহতদের গোঙ্গানির শব্দ শুনে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এসে গুরুতর আহতাবস্থায় ঘর থেকে সাইফুলকে এবং ঘরের সামনে থেকে আঁখিকে উলঙ্গ অবস্থায় উদ্ধার করে গাজীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আঁখিকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত সাইফুলের অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে সেখান থেকে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১২টার দিকে সাইফুল মারা যায়। এদিকে বাবা মেয়ের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। এ ঘটনায় এলাকাবাসী ও আঁখির সহপাঠী ওই ফকির শাহ্ ফসিহ্ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা খুনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এ সময় তারা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে পোড়াবাড়ি এলাকায় কিছু সময় অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেয়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: