২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আবারও হরর ছবিতে বিপাশা বসু


বলিউড

বিপাশার হরর ছবির যাত্রাটা শুরুটা হয়েছিল সেই ২০০২ এ বিক্রম ভাটের ‘রাজ’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে। পরবর্তীতে ‘ডরনা জরুরী হ্যায়’ ও ‘আত্মা’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে সে ধারা ধরে রাখেন তিনি। আর ২০১৫ এর একদম গোড়াতেই আবারও ‘অ্যালোন’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে পর্দায় হাজির হচ্ছেন বিপাশা। আর তার বিপরীতে অভিনয় করছেন জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা করণ সিং গ্রোভার যেটি কিনা তার অভিষেক চলচ্চিত্র। ইউটিউবে ট্রেলারের মাধ্যমে সারা ফেলে দিয়েছে ছবিটি। মাত্র ২ দিনে ২ মিলিয়ন দর্শক ট্রেলার দেখে মুগ্ধ...। তাদের অপেক্ষার অবসান ঘটাতে ১৬ জানুয়ারি বড় পর্দায় হাজির হচ্ছেন বিপাশা ও করণ...।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বিপাশা বসু ঘোষণা দিয়েছেন এটিই হতে যাচ্ছে তার সবচেয়ে সাহসী চরিত্রে অভিনয় করা চলচিত্র। তার মতে এমন সাহসী দৃশ্যে এর আগে অনেক চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও এটিই হতে যাচ্ছে সবচেয়ে সেরা কাজ। তবে এর আগেও একাধিক হরর ছবিতে অভিনয় করায় নিজেকে একই ধরনের চরিত্রে আটকে ফেলছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে বিপাশা বসু বলেন, মানুষ তো তাদের প্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রীকে একটা নির্দিষ্ট ঘরানার ভেতরে দেখতেই ভালবাসে এবং তারা সেটা উপভোগও করে। যখন আপনি অক্ষয় কুমার বা সালমান খানের দিকে তাকাবেন তখন তার প্রমাণ পাবেন, তারাও সেই অনুযায়ীই অভিনয় করছে। আর বিশেষ করে বলিউডের ক্ষেত্রে কথাটা খুবই প্রযোজ্য যে দর্শক আপনাকে যেভাবে দেখতে চাচ্ছে নিজেকে সেভাবে উপস্থাপন করা। বাঙালী লাস্যময়ী অভিনেত্রী বিপাশ বসুর মতে ‘অ্যালোন’ আমার কাহে শুধু একটা হরর ছবিই নয়, আমার কাছে এটা একটা তীব্র ভালবাসারও গল্প। আমাদের চরিত্রগুলোর মাঝে আমরা একটা বাস্তবধর্মী প্রেমের গল্প উপস্থাপনের চেষ্টা করেছি। যারা বিবাহিত বা প্রেম করছেন তাদের প্রত্যেকেই সেটা উপলব্ধি করতে পারবেন। ২০০৭ সালে একই নামে একটি থাই ছবির রিমেক এই ছবিতে বিপাশা বসু অভিনয় করেছেন সানজানা ও আনজানা নামক জমজ চরিত্রে। কিন্তু কিছুটা ভিন্নতা তো রয়েই যায়। জমজদের একজন জীবিত তবে আরেকজন মৃত। তবে তাদের দুজনেই কবিরের ভূমিকায় অভিনয় করা করণের প্রেমে হাবুডুবু খেয়েছেন। আর এই জমজ চরিত্রের শূটিং নিয়ে নিজেকে যথেষ্ট পরীক্ষা-নিরীক্ষার ভেতর দিয়ে যেতে হয়েছে বলে বিপাশা জানান এবং এ অভিজ্ঞতা একদমই নতুন ছিল তার কাছে। যার কো-অপারেশন ছাড়া এ ছবিতে নিজেকে উপস্থাপন করা অসম্ভব ছিল সেই করণ স¤পর্কে কি বলছেন বিপাশা? জেনে নেয়া যাক তার মুখেই। তার মতে বলিউডে এটা করণের ডেবু ফিল্ম। তবে তার প্রচেষ্টা ও আন্তরিকতার ঘাটতি ছিল না মোটেও। বিশেষ করে নাচ ও ইমোশনাল দৃশ্যগুলোতে সে নিজেকে ঢেলে দিয়েছে শতভাগ। খুব শীঘ্রই সে নিজেকে বলিউডের প্রথম শ্রেণীর কাতারে নিয়ে আসতে পারবে। ছবিটি প্রযোজনা করছে ‘প্যানোরমা স্টুডিওস’। সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে আছেন অঙ্কিত তিওয়ারি ও মিথুন। আর পরিচালনায়? ভূষণ প্যাটেল যিনি হরর ছবি ‘রাগিণী এমএমএস ২’ ও ‘১৯২০ এভিল রিটার্নস’ নির্মাণ করে ইতোমধ্যেই আলোচিত।