২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চট্টগ্রামে মহাসড়কের নিরাপত্তায় ৮ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামের সঙ্গে সংযুক্ত মহাসড়কে নিরাপত্তা নিñিদ্র করতে মঙ্গলবার রাত থেকে বিজিবির আট প্লাটুন সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এতে পণ্য এবং যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচলে উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে। তবে বিজিবির টহল যানবাহনগুলোর জ্বালানি নিয়ে সঙ্কটে পড়েছে জেলা প্রশাসন। আট প্লাটুন বিজিবি সদস্যের জন্য ১০টি টহল যানবাহনে জ্বালানি সহায়তা দাবি করায় প্রশাসন বিপাকে পড়ে। এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন জ্বালানি সঙ্কট নিরসনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহায়তা চেয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, চট্টগ্রামের স্পর্শকাতর স্থানগুলোতে চোরাগোপ্তা হামলার কারণে কয়েকটি যানবাহনে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এসব স্পর্শকাতর স্থানগুলোতে নিñিদ্র নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরিতে তারা স্থানীয় প্রশাসন ছাড়াও বিজিবি নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয়। মীরসরাই এবং সীতাকু-ে মঙ্গলবার রাত থেকেই দুই প্লাটুন করে চার প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়। তাদের সঙ্গে দেয়া হয়েছে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট। চট্টগ্রাম-ঢাকা মহাসড়কের পাশাপাশি চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরাকান সড়কের স্পর্শকাতর পয়েন্টগুলোতে মোতায়েন করা হয় বিজিবি সদস্যদের। প্রথমে মোতায়েন করা হয়েছিল সাতকানিয়ায়। বুধবার সকাল থেকে পটিয়াতেও বিজিবি নামানো হয়েছে। আরাকান সড়কেও চার প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়। তাদের জন্য রয়েছে ৫টি টহল দল। মঙ্গলবার রাত থেকে দশটি টহল দলের মাধ্যমে এই দুই মহাসড়কে টহল জোরদার করা হলে যানবাহন চলাচলে উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি পায়। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য নিয়ে ট্রাক চলাচল বেড়েছে।

বুধবার দুপুরে বিজিবির পক্ষ থেকে তাদের যানবাহন এবং রিকুইজিশন করা যানবাহনে জ্বালানি সরবরাহের দাবি জানালে জেলা প্রশাসন বিপাকে পড়ে। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন জনকণ্ঠকে জানান, তাদের এ খাতে কোন বরাদ্দ নেই। নিয়মিত কার্যক্রমের জন্য জ্বালানি নিয়ে বরাবরই হিমশিম খেতে হয়। তারপর বিজিবির যানবাহনের জন্য জ্বালানি দিতে গেলে তাদের নতুন বরাদ্দ পেতে হবে। বরাদ্দের জন্য তারা ইতোমধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: