২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কোরি এ্যান্ডারসনের ব্যাটে নিউজিল্যান্ডের জয়


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টেস্ট ব্যর্থতার ভূত পিছু ছাড়েনি সফরকারী লঙ্কানদের! সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে কিউদের কাছে ৩ উইকেটে হেরে গেছে এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসের দল। ক্রাইস্টচার্চে উত্তেজনাপূর্ণ লো-স্কোরিং লড়াইয়ে অভিজ্ঞ মাহেলা জয়াবর্ধনের চমৎকার সেঞ্চুরি সত্ত্বেও বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ৯ উইকেটে ২১৮ রানে থামে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ। জবাবে ৪৩ ওভারে জয় পেতে ৭ উইকেট হারাতে হয় নিউজিল্যান্ডকে। ছয় নম্বরে নেমে ৮১ রানের দৃঢ়তাপূর্ণ ইনিংস খেলে স্বাগতিকদের জয়ের নায়ক কোরি এ্যান্ডারসন। সাত ম্যাচের সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেল ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল। বৃহস্পতিবার হ্যামিল্টনে দ্বিতীয় ওয়ানডে।

কোরি এ্যান্ডারসন কোন মানুষ না শহরের নাম? এক বছর আগেও অনেকের প্রশ্ন ছিল সেটি! কে চিন্ত এই কিউই অলরাউন্ডারকে। ২০১৩-এর জুলাইয়ে অভিষেক, ওই বছর ছয় ওয়ানডে খেলে সর্বোচ্চ ৪৬, চেনার কথাও নয়। ১ জানুয়ারি, ২০১৪ এর প্রথম প্রহরে গোটা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিলেন। ৩৬ বলে ১০০*Ñ কুইন্সটাউনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ভেঙ্গে ফেললেন শহীদ আফ্রিদির (৩৭ বলে) দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড। চকিতে বনে গেলেন বিশ্বতারকা! গোটা বছর সেই এ্যান্ডারসন যেন ঘুমিয়েই ছিলেন। গত জুলাইয়ে নেপিয়ারে ভারতের বিপক্ষে অপরাজিত ৬৮ দেখে মনে হয়েছে বেঁচে আছেন রেকর্ড-ম্যান! এবার ঘুম থেকে জাগলেন মোক্ষম সময়ে, যখন ঘরের মাটিতে দরজায় কাড়া নাড়ছে বিশ্বকাপের মহামঞ্চ। নতুন কোন রেকর্ড হয়ত গড়েননি, তবে জিতিয়েছেন দলকে।

২১৯ বর্তমান ওয়ানডেতে মামুলি টার্গেট। ব্রেন্ডন ম্যাকুকলাম, মার্টিন গাপটিল, কেন উইলিয়ামসন, টম লাথামরা যে দলে আছেন, তাদের জন্য তা দুধভাতই হওয়ার কথা। কিন্তু লঙ্কান বোলারদের সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে ১০০ রানে পঞ্চম, আর ১৪৯ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারিয়ে জুঝতে থাকে কিউইরা। ছয় নম্বর ব্যাটসম্যান হিসেবে লুক রনকি যখন সাজঘরে ফেরেন মনে হচ্ছিল জেতে যাবে লঙ্কানরা। কিন্তু টেল এন্ডারদের নিয়ে অসাধ্য সাধন করেন এ্যান্ডারসন। সপ্তম ও শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরার আগে ৯৬ বলে ১১ চার ও ১ ছক্কায় খেলেন ৮১ রানের দারুণ কার্যকর ইনিংস। তার আগে অধিনায়ক ম্যাককুলামের ৫১ (১৯ বলে ৫০ নিউজিলান্ডের হয়ে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরির যৌথ রেকর্ড) ও শেষদিকে নাথান ম্যাককুলামের ৪৭ বলে অপরাজিত ২৫ রান নিউজিল্যান্ডকে আনন্দদায়ী এক জয় এনে দেয়। তার আগে শ্রীলঙ্কার ইনিংসটি ছিল কেবলই মাহেলাময়। সাবেক অধিনায়ক ক্যারিয়ারের ১৮ নম্বর সেঞ্চুরি তুলে নিলেও বাকিদের ব্যর্থতায় বড় স্কোর পায়নি টেস্ট সিরিজে অপ্রত্যাশিতভাবে ২-০তে হোয়াইটওয়াশ হওয়া লঙ্কানরা।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: