১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গফরগাঁওজুড়ে চলছে শতকোটি টাকার উন্নয়ন


শেখ আব্দুল আওয়াল, গফরগাঁও থেকে ॥ ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার সাধারণ মানুষ যা কখনও চিন্তাই করেনি। তাই হচ্ছে গফরগাঁওয়ে। সুতিয়া নদীর ওপর ব্রিজ হচ্ছে দক্ষিণ গফরগাঁওয়ের জন্য যা হচ্ছে যুগান্তকারী উন্নয়ন। এর মধ্যে ময়মনসিংহ, গাজীপুর ও কিশোরগঞ্জ তিন জেলার চার উপজেলা গফরগাঁও, শ্রীপুর, কাপাশিয়া ও পাকুন্দিয়া সড়ক পথে সরাসরি সংযুক্ত হতে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে নিগুয়ারী ইউনিয়নের সুতিয়া নদীতে ১০০ মিটার দীর্ঘ ব্রিজ নির্মাণ হচ্ছে। এলজিইডির অর্থায়নে এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ৪ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

গফরগাঁও উপজেলায় গত এক বছর ছিল উন্নয়ন প্রকল্পের ছড়াছড়ি। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চোখে পড়ে ভিত্তিপ্রস্তর আর ভিত্তিপ্রস্তর। নতুন নতুন প্রকল্পের বাস্তবায়ন চলছে যা অতীতে যে কোন সময়ের তুলনায় ব্যাপক। ২০১৩ জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর উন্নয়নের তুলনায় ২ গুণ বেশি।

গফরগাঁওয়ের এমপি ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল জানান, ৮৪ কোটি ১৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪৩ টাকা ব্যয়ে উপজেলা জুড়ে সমন্বিত উন্নয়ন কার্যক্রম চলছে। যা গত বছরের উন্নয়ন বরাদ্দের ১০ কোটি টাকা বেশি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বর্তমান সরকারের মেয়াদ ৫ জানুয়ারি ১ বছর হয়েছে। এ সময়ে গফরগাঁওয়ে উন্নয়নে প্রায় শত কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। সরকারের সংশিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ইতিমধ্যে ১৭ কোটি ৭ লাখ ৯৩ হাজার ৪ শত ৬৯ টাকার উন্নয়ন স্কিম সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে ১৭ কোটি ৯০ লাখ ৮৫ হাজার টাকার প্রকল্পের কাজ চলছে। এছাড়াও ৭৩ কোটি ৯০ লাখ টাকার কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ইতিমধ্যে কোরিয়ার অর্থায়নে শিক্ষা তথ্য পরিসংখ্যান ব্যুরো (ব্যানবেইস) তত্ত্বাবধানে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) ভবন নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। যা উদ্বোধনের অপেক্ষা বলে জানান উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার সলিম উল্লাহ মোস্তফা জনকণ্ঠকে বলেন, সাংসদ ফাহমি গোলন্দাজ বাবেলের আপ্রাণ চেষ্টায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণের যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে, খুব শীঘ্রই এ কমপ্লেক্সের কাজ শুরু হবে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে গফরগাঁওয়ের একাধিক ব্যক্তি জানান, উন্নয়নের ছড়াছড়ি ভিত্তিপ্রস্তর সব কিছুকেই ম্লান করে দিবে গফরগাঁও-ভালুকা সড়ক। কারণ গফরগাঁওয়ে এত উন্নয়ন হলেও এই ১৯ কিলোমিটার সড়কটি সব সরকারের সময়ই থাকে অবহেলিত উন্নয়নের ছোঁয়া স্বাধীনতার ৪০ বছরেও পায়নি। সাংসদের মাধ্যমে শেখ হাসিনা সরকারের কাছে আমাদের দাবি রাস্তাটি যেন সংস্কার করা হয়। রাস্তাটি সংস্কার হলে গফরগাঁও হয়ে সড়ক পথে ঢাকার দূরত্ব ২ ঘণ্টা কমে যাবে।

এলাকাবাসী আরও জানান, উপজেলার বিভিন্ন অফিসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা/কর্মচারীদের দুর্নীতির কারণে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বিঘœ সৃষ্টি করছে সেদিকে মাননীয় সংসদের সুদৃষ্টি দেয়া প্রয়োজন। গফরগাঁওয়ের আওয়ামী লীগ এখন যেভাবে ঐক্যবদ্ধ আছে ভবিষ্যতে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকলে বাবেল গোলন্দাজের নেতৃত্বের কোন বিঘœ হবে না।